টিডিএন বাংলা ডেস্ক: সমাজ যাচ্ছে কোথায়? দেশে একের পর এক ধর্ষণের ঘটনা ঘটেই চলেছে। প্রথমে হায়দ্রাবাদে এক পশুচিকিৎসক কে গণধর্ষণের পর পুড়িয়ে হত্যা করা হল। তার পর মালদা ও ঝারখন্ড। এবার বিজেপি শাসিত ত্রিপুরায় গণধর্ষণের পর নাবালিকাকে পুড়িয়ে খুনের অভিযোগ।

জানাগেছে, প্রেমের টোপ দিয়ে নাবালিকাকে বাড়িতে ডেকে দু’মাস ধরে লাগাতার ধর্ষণ করে ‘প্রেমিক’। পরে তার বন্ধুরাও মেয়েটির উপর পাশবিক অত্যাচার চালায়। শেষমেশ প্রমাণ লোপাটের জন্য নাবালিকাকে জ্বালিয়ে দেওয়া হয়। শনিবার সকালে ৯০ শতাংশ অগ্নিদগ্ধ অবস্থায় তাঁকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। চিকিৎসা চলাকালীন মৃত্যু হয় তাঁর। অভিযুক্ত যুবক অজয় রুদ্রপাল ও তার মাকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। ত্রিপুরার এই ঘটনা সামনে আসতেই পুলিশের ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন উঠছে। নির্যাতিতার পরিবারের অভিযোগ, পুলিশের কাছে বারবার ছুটে গিয়েও কোনও লাভ হয়নি।

এদিকে অজয় ও তার মা পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করতে তাদের হাসপাতালে টেনে আনে স্থানীয় বাসিন্দারা। সেখানে তাদের বেধড়ক মারধর করা হয়। পরে দুজনকে পুলিশের হাতে তুলে দেওয়া হয়। বাকিদের খোঁজে তল্লাশি চলছে।