টিডিএন বাংলা ডেস্ক: তাঁর সঙ্গে জঙ্গির মতো আচরণ করছে প্রশাসন। শুধু তাই নয় তাঁর সমর্থকদের ওপরেও নির্যাতন চালাচ্ছে আদিত্যনাথের পুলিস। রামপুরের এক সভায় অভিযোগ সমাজবাদী পার্টির নেতা আজম খানের।

শুক্রবার রামপুরের এক সভায় তিনি বলেন, আমার সঙ্গে প্রশাসন এমন ব্যবহার করছে যেন মনে হয় আমি কোনও দেশদ্রোহী কিংবা কোনও কুখ্যাত জঙ্গি। কর্মী সমর্থকদের সামনে ওইসব কথা বলতে বলতেই কেঁদে ফেলেন অখিলেশ যাদবের বিশ্বস্ত সঙ্গী আজম খান। এমনকী তাঁকে গুলি করে মারার আশঙ্কাও করেন তিনি।

আজম খানের সাম্প্রতিক মন্তব্য ও কার্যকলাপের কথা মাথায় রেখে তাঁর ওপরে তিন দিনের নিষেধাজ্ঞা জারি করে নির্বাচন কমিশন। এনিয়ে তিনি বলেন, ভোটের তিন দিন আগে আমার ওপরে নিষেধাজ্ঞা চাপানোর উদ্দেশ্য বোঝা যায়। এই সময়ের মধ্যে আমি কোথাও যেতে পারব না, কারও সঙ্গে দেখা করতে পারব না। কোনও সভায় যেতে পারব না।

রাজ্য প্রশাসনের বিরুদ্ধে তোপ দেগে আজম খান বলেন, প্রশাসন রাজ্যে সন্ত্রাসের রাজত্ব কায়েম করেছে। আমার সমর্থকদের বাড়িতে ঢুকে তাদের মারধর করা হচ্ছে। বাড়ির মেয়েদর ওপরেও অত্যাচার চালানো হচ্ছে।

 

Advertisement
mamunschool