টিডিএন বাংলা ডেস্ক: ইভিএমে বসপার হাতি ছাপ বোতাম চাপতে গিয়ে ভুল করে বিজেপির পদ্মে চাপা হয়েগিয়েছে। তাই রাগে ও অনুতাপে নিজের আঙুল কেটে ফেললেন এক যুবক। বৃহস্পতিবার এমনই এক অদ্ভূত ঘটনা ঘটল উত্তরপ্রদেশের বুলন্দশহর জেলার শিকারপুরে।

এদিনে ভোট দিতে গিয়েছিলেন শিকারপুরের আবদুল্লাপুর হালসানা গ্রামের দলিত যুবক পবন কুমার। কিন্তু ইভিএম-এ হাতি ছাপের বোতাম টিপতে গিয়েই বিপত্তি। ভুল করে তিনি পদ্ম ছাপের বোতামে চাপ দিয়ে দেন। ফলে জোট প্রার্থী যোগেশ ভার্মার জায়গায় ভোট গিয়ে পড়ে বিজেপি প্রার্থী ভোলা সিংয়ের ঝুলিতে।

এলাকাবাসীর বক্তব্য এতে খুবই অনুতপ্ত পবন। শুধু তাই নয়, বাড়িতে এসে কাস্তে দিয়ে নিজের বাঁ হাতের আঙুল কেটে ফেলেন পবন। তবে অনুতাপ, নাকি কোনও চাপে পড়ে তিনি একাজ করেছেন তা নিয়ে প্রশ্ন থেকেই যাচ্ছে। এনিয়ে অবশ্য তিনি একটি ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রকাশ করেছেন।

উল্লেখ্য, এবার বুলন্দশহরে জোর টক্কর সপা-বসপা-আরএলডি জোট বনাম বিজেপির। কিন্তু বৃহস্পতিবার ভোট শুরু হতেই গোলমাল পাকিয়ে ফেলেন বিজেপি প্রার্থী ভোলা সিং। একটি বুথে গিয়ে তিনি ভোটারদের কাছে ভোট চেয়ে বসেন। সেই ভিডিও সামনে আসতেই ভোলার বিরুদ্ধে কড়া পদক্ষেপ নেয় নির্বাচন কমিশন। সন্ধে ৬টা পর্যন্ত তাঁকে ঘরে থাকতে নির্দেশ দেওয়া হয়। বিষয়টি নিয়ে জেলার জোর শোরগোল শুরু হয়ে যায়।