টিডিএন বাংলা ডেস্ক: নতুন মরশুমে তাঁকে কোচ হিসাবে আর রাখেনি ইস্টবেঙ্গল। বেশ কয়েকদিন কলকাতাতেই ছিলেন। শেষমেশ বাধ্য হয়েই ফিরে গিয়েছিলেন মুম্বাই। আই লিগ এবং আই এস এল-র বেশ কিছু ক্লাব প্রাথমিকভাবে যোগাযোগ করলেও আর কথা এগয়নি। কলকাতা লিগের শেষের দিকে মহামেডানের কোচ হয়ে কলকাতায় আসতে চেয়েছিলেন। সাদা কালো কর্তারা প্রথমে উৎসাহ দেখিয়েও শেষ অবধি আর খালিদকে কোচ করেননি। এই দীর্ঘ কয়েক মাস সব রকমের কোচিং থেকেই নিজেকে সরিয়ে রেখেছিলেন এই আই লিগ জয়ী কোচ। শেষ পর্যন্ত আবার ফুটবলে যুক্ত হতে চলেছেন তিনি। মুম্বাইয়ের কল্যাণে এলিট ফুটবল স্কুলে যুক্ত হতে চলেছেন তিনি। অক্টোবরের শুরু থেকেই নতুন দায়িত্ব নিচ্ছেন খালিদ।

এই আকাদেমিতে খালিদের সঙ্গেই রয়েছেন তাঁর অভিন্ন হৃদয় বন্ধু আব্দুল সিদ্দিকিও। দুই বন্ধু মিলেই আপাতত দেখভাল করবেন এই আকাদেমির। রাখা হবে কোচও। মুম্বাই থেকে খালিদ জানালেন, ‘ছোটদের কোচিং করানোর বিষয়টি এখনও ভাবিনি। অনেকবার করে অনুরোধ করল, তাই আপাতত আকাদেমিতে সুপারভাইজর হিসাবে যুক্ত হচ্ছি। আকাদেমি কিভাবে এগবে, কিভাবে অনুশীলন করানো হবে। সেই পদ্ধতিই ঠিক করে দেবো। আমি এবং সিদ্দিকি দুজনে একসঙ্গে কাজ করব।’ ইতিমধ্যেই উদ্যোক্তাদের পক্ষ থেকে জোরকদমে চলছে প্রচারের কাজ। খালিদ জামিলের ছবি এবং নাম সহকারে হ্যান্ডবিল ছাপিয়ে বিলিও চলছে।  আই লিগ, আই এস এল এবং জাতীয় দলে মুম্বাই থেকে যত বেশি সম্ভব ফুটবলার সাপ্লাই দেওয়াই লক্ষ্য খালিদের। যতদিন না নতুন দলের সঙ্গে যুক্ত হচ্ছেন সারাক্ষণই দিতে চাইছেন আকাদেমিতে। আই লিগ জয়ী কোচ এবার নতুন ভূমিকায়।

Not available