টিডিএন বাংলা ডেস্ক: বিশ্বকাপের আগে ইংল্যান্ডের কন্ডিশনে মানিয়ে নেওয়ার চ্যালেঞ্জে হার দিয়ে শুরু করল পাকিস্তান। রোববার (০৫ মে) একমাত্র টি-টোয়েন্টি ইংল্যান্ডের কাছে ৭ উইকেটে হেরে গেছে তারা।

কার্ডিফের সোফিয়া গার্ডেনে টস জিতে প্রথমে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেন পাকিস্তান ক্রিকেট দলের অধিনায়ক সরফরাজ আহমেদ। বাবর আজম ও হারিস সোহেলের ফিফটিতে ৬ উইকেটে ১৭৩ রান করে পাকিস্তান। জবাবে এউইন মরগানের ঝড়ো ইনিংসে ১৯.২ ওভারে ৩ উইকেটে ১৭৫ রান করে ইংল্যান্ড।

টস জিতে প্রথমে ব্যাট করতে নামা পাকিস্তান ৩১ রানের মধ্যে দুটি উইকেট হারায়। ফখর জামান ও ইমাম উল হক দুজনেই ৭ রান করে বিদায় নেন। এরপর একশ ছাড়ানো জুটি গড়ে তারা বাবর ও হারিসের ব্যাটে। ১৩১ রানের জুটি গড়েন তারা।

জোফরা আর্চার দলের ১৬তম ওভারে তাদের দুজনকে আউট করেন। ৩৪ বলে ৫ চার ও এক ছয়ে পঞ্চাশ করার দুই বল পর ডেভিড উইলিকে ক্যাচ দেন হ্যারিস। ৩৬ বলে ৫০ রান করে মাঠ ছাড়েন তিনি। ৬৫ রানের ইনিংস সেরা পারফরম্যান্সের পথে বাবর হাফসেঞ্চুরি করেন ৩১ বল খেলে। তার ৪২ বলে ৫ চার ও ৩ ছয়ে সাজানো ইনিংসের ইতি ঘটে আর্চারের কাছে রান আউটে।

পরের ওভারে আসিফ আলী (৩) আউট হলেও ফাহিম আশরাফ ও ইমাদ ওয়াসিম উল্লেখযোগ্য অবদান রাখেন দলীয় স্কোরে। ২৬ রানের জুটি গড়েন তারা শেষ দিকে। ফাহিম ১৭ রানে আউট হলেও ইমাদ ১৮ রানে টিকে ছিলেন।

ইংল্যান্ডের পক্ষে সর্বোচ্চ দু’টি উইকেট নেন আর্চার।

পাকিস্তানের দেয়া ১৭৪ রানের টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে দ্রুত উইকেট হারালেও দ্বিতীয় উইকেটে ৪৫ রানের জুটি গড়েন জো রুট ও জেমস ভিঞ্চ। রুটের ব্যাট থেকে আসে ৪২ বলে ৪৭ রান। ভিঞ্চ করে ২৭ বলে ৩৬ রান।

ভিঞ্চ আউট হওয়ার পরে তৃতীয় উইকেটে অধিনায়ক মরগানের সাথে ৬৫ রান যোগ করেন রুট। মরগানের ব্যাট থেকে আসে ম্যাচজয়ী ৫৭ রান। তার অপরাজিত ২৯ বলের ইনিংসটি ছিল ৫টি চার ও ৩টি দর্শনীয় ছক্কায় সাজানো।

রুট ফিরে যাওয়ার পরে চতুর্থ উইকেটে জো ডেনলিকে নিয়ে বাকি কাজটুকু সারেন অধিনায়ক মরগান। ডেনলি করেন ১২ বলে ২০ রান। ফলে ৪ বল হাতে রেখেই ৭ উইকেটের সহজ জয় পায় ইংল্যান্ড।

আগামী ৮ মে দুই দল খেলবে পাঁচ ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজের প্রথমটি।

সংক্ষিপ্ত স্কোর

পাকিস্তান: ২০ ওভারে ১৭৩/৬ (বাবর ৬৫, হারিস ৫০, ইমাদ ১৮, ফাহিম ১৭, ফখর ৭, ইমাম-উল ৭, আসিফ ৩, হাসান ০)।

ইংল্যান্ড: ১৯.২ ওভারে ১৭৫/৩ (মরগান ৫৭*, রুট ৪৭, ভিন্স ৩৬)।

ফল: ইংল্যান্ড ৭ উইকেটে জয়ী।