টিডিএন বাংলা ডেস্ক: করোনার থাবায় বিশ্ব কাঁপছে। পর্তুগাল ও স্পেনেও শুরু হয়েছে মৃত্যু মিছিল। সম্প্রতি স্পেনের শীর্ষস্থানীয় দৈনিক মার্কা একটি রিপোর্ট করে, করোনার মোকাবিলায় অনন্য নজির স্থাপন করতে চলেছেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো। পর্তুগালের লিসবন এবং মাদেইরাতে রোনাল্ডোর দুটি পেস্তানা হোটেল রয়েছে। ওই দুটি হোটেলকে এবার অস্থায়ী হাসপাতালে পরিণত করা হবে। এক কথায় নিজের দুটি বিলাসবহুল হোটেল অস্থায়ীভাবে হাসপাতালে রূপান্তরিত করার জন্য নির্দেশ দিয়েছেন জুভেন্টাসের তারকা। পর্তুগালের করোনাভাইরাস আক্রান্ত মানুষদের বিনামুল্যে চিকিৎসা দিতে হাসপাতাল দুটির যাবতীয় খরচ বহন করবেন রোনাল্ডো নিজেই। রোগী, চিকিৎসক ও নার্সসহ সবার সবরকম খরচও তিনি বহন করবেন বলে খবরে প্রকাশ করা হয়। কিন্তু বাস্তবে তেমনটা কিছুই না। এই খবর পরকাশের পরেই এটা ভিত্তিহীন বলে জানান ফুটবল সাংবাদিক ক্রিস্টফ টেরের। তিনি এই সংবাদকে নকল বলে অভিহিত করেছেন। মার্কা এই ঘটনা প্রকাশের পরে তা আবার মুছে দেয়।

যে সাংবাদিক এই খবরটি করেছিলেন তিনি পরবর্তীকালে ফের একটি টুইট করে ক্ষমা চান। এবং এই খবরটিকে মিথ্যে বলে জানান। তিনি টুইটে লেখেন, “পর্তুগালে রোনাল্ডোর দুটি হোটেলকে অস্থায়ী হাসপাতালে পরিণত করার ব্যাপারে যে রিপোর্টটি করা হয়েছে সেটা ভুয়ো। মার্কা সেই রিপোর্টটি ডিলিট করেছে।”

করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার বিষয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করে রোনাল্ডো এর আগে টুইট করেছিলেন, “বিশ্ব খুব কঠিন মুহূর্তের মধ্যে দিয়ে চলেছে যা আমাদের সবার কাছ থেকে অত্যন্ত যত্ন ও মনোযোগ দাবি করে। আমি আজ আপনাদের সাথে ফুটবল খেলোয়াড় হিসাবে নয়, একজন পুত্র, পিতা, সর্বশেষ প্রভাব ফেলতে সক্ষম করোনার ঘটনাবলী নিয়ে উদ্বিগ্ন একজন মানুষ।”

সূত্র- ডেকান ক্রনিকল, ইন্ডিয়া টিভি নিউজ