টিডিএন বাংলা ডেস্ক: অবহেলায় ধ্বংস গোষ্ঠ পালের ট্রফি-মেডেল, মোহনবাগান তাঁবু থেকে বেরিয়ে কাঁদতে কাঁদতে থানায় গেলেন ছেলে। ক্লাবে গিয়ে মন ভাঙল গোষ্ঠ পালের ছেলে নীরাংশু পালের।
হাতে বাবার পাওয়া জরাজীর্ণ সব পুরস্কার। মোহনবাগান ক্লাব তাঁবুতে হাউহাউ করে কাঁদছেন তিনি। ২৭ বছর আগে গোষ্ঠ পালের পাওয়া পদ্মশ্রী-সহ পদক, দুষ্প্রাপ্য সব ছবি, দুর্মূল্য ব্যাজ মোহনবাগানের হাতে তুলে দিয়েছিলেন নীরাংশুবাবু। শনিবার সে সবের ধ্বংসাবশেষই তাঁর হাতে তুলে দেওয়া হল! এ নিয়ে শেষমেশ পুলিশের কাছে গিয়েছেন তিনি।

এগুলো ফেরত নিতেই নীরাংশুবাবুকে শুক্রবার ফোন করা হয়েছিল ক্লাবের তরফে। ক্লাবে পৌঁছনোর পর একটি বাজারের ব্যাগ তাঁর হাতে তুলে দেওয়া হয়, যার ভেতরে ছিল হারিয়ে যাওয়া পুরস্কারগুলো। তার কোনওটা ভেঙে গিয়েছে, ইঁদুরের কামড়ে ছিন্নবিচ্ছিন্ন হয়ে গিয়েছে দামি মানপত্র! এ দিন তাঁর হাতে যে সমস্ত জিনিস তুলে দেওয়া হয়েছে, তাতে ছিল না পদ্মশ্রী পদক। দুর্মূল্য ব্যাজেরও খোঁজ মেলেনি।

কিংবদন্তি বাবার প্রতি ক্লাবের অমর্যাদা-অশ্রদ্ধা দেখে নিজেকে আর সামলে রাখতে পারেননি নীরাংশুবাবু। চোখের জল মুছে সোজা ছোটেন ময়দান থানায়। তিনি বলেন, ‘সবটাই জানিয়েছি ময়দান থানায়। মোহনবাগান ক্লাবের তরফে জানানো হয়েছে, ওঁরা বাকি ট্রফিগুলো খুঁজছেন।’