স্পোর্টস ডেস্ক, টিডিএন বাংলা : ব্যক্তিগত ইভেন্টকে বিদায় বলেছেন আগেই, আজ ছিল ট্র্যাককেই বিদায় বলার পালা! উসাইন বোল্টের শেষটা হলো চোট দিয়ে, ট্র্যাকে খোঁড়াতে খোঁড়াতে! ওয়ার্ল্ড চ্যাম্পিয়নশিপে ৪x১০০ মিটার যোগাযোগ দৌড়ে সোনা জিতেছে স্বাগতিক গ্রেট ব্রিটেন। যুক্তরাষ্ট্র জিতেছে রৌপ্য, আর ব্রোঞ্জ পেয়েছে জাপান।

বোল্ট ছিলেন সবার শেষে। ব্যাটন হাতে নিয়ে শুরুটা করেছিলেন ঠিকঠাকই, গিয়ার পরিবর্তন করতে গিয়েই চোট পান হ্যামস্ট্রিংয়ে। দৌড় শেষ করতে পারেননি, আটকে গেছেন, খোঁড়াতে খোঁড়াতে থেমে গিয়ে উল্টেই পড়েছেন! হুইল চেয়ার আনা হয়েছিল, শেষ পর্যন্ত অবশ্য হেঁটেই গেছেন ট্র্যাকের বাইরে, চিকিৎসার জন্য।

গোটা স্টেডিয়াম ক্ষণিকের জন্য যেন থমকে দাঁড়িয়েছিল বোল্টের চোট দেখে। তবে খানিকবাদেই উল্লাসে ফেটে পড়েছে, জিতেছে যে নিজেদের দল! গ্রেট ব্রিটেনের উল্লাসের মাঝেই সরে গেছেন বোল্ট, শেষবারের মতো!

গত সপ্তাহে ১০০ মিটার স্প্রিন্ট দিয়ে একক দৌড়ের শেষ টেনেছিলেন বোল্ট। গ্যাটলিনের কাছে সোনা হারিয়ে, ব্রোঞ্জ পদক নিয়েই সন্তুষ্ট থাকতে হয়েছিল। অ্যাথলেটিকস বিশ্বচ্যাম্পিয়ন দিয়েই নিজের ক্যারিয়ার শেষ করার ঘোষণা দিয়েছিলেন। আজ ছিল তার ক্যারিয়ারেই শেষ দৌড়। শেষটা ভুলে যাওয়ার মতোই হল বোল্টের। ২০০৭ সালের পর প্রথমবারের মতো ওয়ার্ল্ড চ্যাম্পিয়নশিপ এই ইভেন্টের ফাইনালে হারল জ্যামাইকাও। সর্বকালের সর্বসেরা এইই স্প্রিন্টার ক্যারিয়ার শেষ করলেন মোট ১১টি বিশ্বচ্যাম্পিয়নশিপ ও ৮ টি অলিম্পিক সোনা নিয়ে।

বিদায় বলেছেন প্রিয় ট্র্যাককে, এভাবে নিশ্চয়ই চাননি! এখন পর্যন্ত পৃথিবীর দ্রুততম মানব অ্যাথলেটিকস ট্র্যাকে শুধু দৌড়াননি, যেন উড়েছেন এতোদিন! বোল্ট যেন হয়ে গিয়েছিলেন অতিমানব! সেই অতিমানব আজ যেন নেমে এলেন সাধারণদের কাতারে! শেষটা হলো না ঠিক শেষের মতো!

তাতে কি! উসাইন বোল্ট তো পৃথিবীতে একজনই! সব অ্যাথলেটদের মাঝেই সেরা কিনা, সেটা নিয়ে কথা থাকতে পারে। কিন্তু সেরাদের খুব সংক্ষিপ্ত তালিকাতেও যে তিনি থাকবেন, সেটা তো নিশ্চিতই!

বিদায়, উসাইন বোল্ট!