টিডিএন বাংলা ডেস্ক: রবিবার অনূর্ধ্ব-১৯ ক্রিকেট বিশ্বকাপ ফাইনালে টসে হেরে বাংলাদেশের বিরুদ্ধে ব্যাটিং করতে নামে ভারত। টসে জিতে প্রথমে বোলিংয়ের সিদ্ধান্ত নিল বাংলাদেশ। ভারতীয় ব্যাটিংকে মাত্র ১৭৭ রানে আটকে দেয় বাংলাদেশের বোলিং লাইনআপ। ৪৭ ওভার ২ বলেই শেষ হয়ে যায় ভারতের ইনিংস। ফলে, প্রথম বার চ্যাম্পিয়ন হয়ে ইতিহাস গড়তে হলে বাংলাদেশকে তুলেতে হবে মোটে ১৭৮ রান।

এদিন শুরু থেকেই বাংলাদেশি বোলারদের দাপটে রীতিমতো নাকানিচোবানি খেতে হয় ভারতের তাবড় ব্যাটিং লাইন আপকে। প্রথম দুই ওভারে ওপেনার যশস্বী জয়সওয়াল এবং দিব্যাংশ সাক্সেনা দলের স্কোরবোর্ডে কোনও রান যোগ করেননি।

ভারত মোট রান করেছে ১৭৭। আর তার মধ্যে যশস্বী একাই করেছেন ৮৮। যশস্বী ছাড়া তিলক ভর্মা এবং জুরেল লজ্জাজনক স্কোরবোর্ডে একটু হলেও সামাল দিয়েছেন। তিলকের ব্যাট থেকে উঠে আসে ৩৮ রান এবং জুরেল ভারতের স্কোরবোর্ডে যোগ করেন ২২ রান। এছাড়া ভারতীয় অনূর্ধ্ব ১৯ দলের ব্যাটসম্যানদের কেউই এক অঙ্কের রানের গণ্ডি পার করতে পারেননি।

বাংলাদেশকে এদিন হারাতে পারলে অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপের ইতিহাসে পঞ্চমবারের জন্য চ্যাম্পিয়ন হবে ভারত। এর আগে ২০০০, ২০০৮, ২০১২ ও ২০১৮ সালে ভারত অনূর্ধ্ব-১৯ ক্রিকেট বিশ্বকাপ জিতেছে।

তবে বাংলাদেশও পিছিয়ে নেই। বাংলাদেশের প্রাক্তন অনূর্ধ্ব-১৯ অধিনায়ক মেহেদি হাসান মিরাজ বলেছেন, ‘সিনিয়র টিমে একাধিকবার বিভিন্ন ফাইনালে জয়ের কাছে গিয়েও আমরা ভারতকে হারাতে পারিনি। এ বার সেটা করে দেখাবে আমাদের ছেলেরা।’