স্পোর্টস ডেস্ক, টিডিএন বাংলা : বিরাট কোহলি ছাড়া আর ভারতীয় অধিনায়কদের সম্মিলিত ডাবল সেঞ্চুরি ৪টি। দিল্লীতে আজ কোহলি করলেন নিজের ৬ষ্ঠ ডাবল সেঞ্চুরি। অধিনায়ক হিসেবে ডাবল সেঞ্চুরি সংখ্যায় কোহলিই এখন সবার আগে, তিনি পেছনে ফেলেছেন ব্রায়ান লারাকে। ‘বায়ুদূষণ’-এ বেশ কিছুক্ষণ বন্ধ থাকা দিল্লী টেস্টের দ্বিতীয় দিনেও তাই উজ্জ্বল ভারতীয় অধিনায়ক। গড়েছেন ব্যক্তিগত সর্বোচ্চ স্কোরও। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে এমন দৃশ্য দেখা যায়নি আগে কখনো। মুখে মাস্ক পরে মাঠে খেলা চালিয়ে যাচ্ছেন ক্রিকেটাররা! রবিবার ভারত আর শ্রীলঙ্কার মধ্যকার দিল্লি টেস্টে দেখা গেল এমন ঘটনা। এমনকি দিল্লির বায়ু দূষণ এতটাই প্রভাব ফেলেছিল ম্যাচে, যে খানিক সময়ের জন্য খেলা বন্ধও রাখতে হয়েছে।

 

সুরাঙ্গা লাকমালের অফস্টাম্পের বাইরের বল টেনে মিড-উইকেটে খেলে ২০০ পূর্ণ করেছেন, এর আগেই এক টেস্ট সিরিজে তৃতীয়বার ৫০০ রান পেরিয়েছেন কোহলি। লাঞ্চের ঠিক আগে কাট করতে গিয়ে উইকেটকিপার নিরোশান ডিকভেলাকে ক্যাচ দিয়েছেন রোহিত শর্মা, লাকশান সান্দাকানের বলে। রোহিত সেঞ্চুরি মিস করলেও দল তার আগেই ছুঁয়েছে ৫০০।

লাঞ্চের পরই শুরু হয়েছিল ‘ধোঁয়াশা’ নাটক। প্রথম ‘দূষণ বিরতি’-র পর গামাগের বলে ক্যাচ দিয়েছেন রবিচন্দন আশ্বিন। কোহলির উইকেট পেয়েছেন সান্দাকান, এলবিডাব্লিউয়ের সিদ্ধান্তে রিভিউ নিয়েও অবশ্য শেষরক্ষা হয়নি ডাবল সেঞ্চুরিয়ানের।

এর কিছুক্ষণ পরই ইনিংস ঘোষণা করেছেন কোহলি। ওপেনার সামারাবিক্রমা ফিল্ডিংয়ের সময় হেলমেটে আঘাত পেয়েছিলেন, সতর্কতার জন্য নামেননি তিনি। তার জায়গায় এসেছিলেন অফস্পিনিং অলরাউন্ডার দিলরুয়ান পেরেরা, ব্যাটিংয়ে ছিলেন দারুণ ছন্দেই। ৯ চারে ৫৪ বলে ৪২ করে এলবিডাব্লিউ হয়েছেন রবীন্দ্র জাদেজার বলে।
তবে তার আগেই আঘাত পেয়েছে শ্রীলঙ্কা। প্রথম বলেই করুনারত্নে শামির ভেতরের দিকে ঢোকা বলে ক্যাচ দিয়েছেন ঋদ্ধিমান সাহাকে, যেন দিল্লীর অস্বস্তিকর পরিবেশ থেকে পালিয়ে বাঁচতে চান তাড়াতাড়ি! ৬ষ্ঠ ওভারে ইশান্ত শর্মার বলে এলবিডাব্লিউ কুশাল সিলভা, শ্রীলঙ্কা তখন ধুঁকছে।
দুইটি ক্যাচ মিস করেছেন ফিল্ডাররা। তবে প্রথমে পেরেরা ও পরে চান্ডিমালের সঙ্গে অবিচ্ছিন্ন জুটিতে লড়াই চালিয়ে গেছেন অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউস। শট খেলায় বেশ আক্রমণাত্মক ছিলেন ম্যাথিউস, ফিফটি করেছেন ছয় মেরে, তার আগের বলেও মেরেছিলেন ছয়। শেষ পর্যন্ত আলোকস্বল্পতায় শেষ হয়েছে দিনের খেলা।
৩য় টেস্ট, দিল্লী, ২য় দিনশেষে
টস-ভারত (ব্যাটিং)
ভারত ১ম ইনিংস ৫৩৬/৭ ডিক্লে. (কোহলি ২৪৩, বিজয় ১৫৫, রোহিত ৬৫, সান্দাকান ৪/১৬৭)
শ্রীলঙ্কা ১ম ইনিংস ১৩১/৩ (ম্যাথিউস ৫৭*, পেরেরা ৪২, জাদেজা ১/২৪)

শ্রীলঙ্কা ৪০৫ রানে পিছিয়ে