স্পোর্টস ডেস্ক, টিডিএন বাংলা : আইপিএলের দ্বিতীয় দিনে একসাথে দেড়শ ম্যাচের মাইলফলক স্পর্শ করেন বিরাট কোহলি এবং রবিন উথাপ্পা। কলকাতা নাইট রাইডার্স বনাম রয়েল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরুর মধ্যকার খেলায় আইপিএলে দেড়শতম ম্যাচের ক্লাবে প্রবেশ করেন কোহলি এবং উথাপ্পা।

একদিন পরই এই ক্লাবে ঢোকার অপেক্ষায় রয়েছেন আরেক অলরাউন্ডার ইউসুফ পাঠান। আইপিএলের আগের দশ আসরে কলকাতা নাইট রাইডার্স এবং রাজস্থান রয়্যালসের হয়ে ১৪৯টি ম্যাচ খেলেন পাঠান ভাইদের বড় জন।

এই ১৪৯ ম্যাচে আইপিএলের ইতিহাসের ত্রয়োদশ সর্বোচ্চ ২৯০৪ রান করেন পাঠান। ২০১০ সালের আসরে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের বিপক্ষে মাত্র ৩৭ বলে হাঁকান তখকার দ্রুততম টি-টোয়েন্টি সেঞ্চুরি। এই সেঞ্চুরি ছাড়াও ১৩টি হাফ সেঞ্চুরি রয়েছে পাঠানের নামের পাশে। বড় বড় ছক্কার জন্য বিখ্যাত পাঠান, ছক্কার দেড়শ থেকেও রয়েছেন মাত্র চার ছক্কা দুরে।

সোমবার চলতি আসরে নিজেদের প্রথম ম্যাচে খেলতে নামবে ইউসুফ পাঠানের সানরাইজার্স হায়দরাবাদ। ম্যাচের একাদশে সুযোগ পেলেই কোহলি-উথাপ্পাদের পর সপ্তম ক্রিকেটার হিসেবে আইপিএলে দেড়শ ম্যাচ খেলার রেকর্ড গড়বেন ‘পাঠান পাওয়ার’ খ্যাত ইউসুফ পাঠান।