টিডিএন বাংলা ডেস্ক: এল তবে মন ভরল কই! দিঘায় উঠল ইলিশ। ১২ টন ইলিশ উঠেছে আজ দিঘা মোহনায়। তবে রুপোলি শস্যের দেখা মিললেও মুখভার মৎস্যজীবী থেকে ব্যবসায়ীদের। কারণ গতবারের তুলনায় ইলিশের পরিমাণ খুবই কম।

গত মরশুমে এই সময় দিঘা মোহনা উপছে পড়েছিল ইলিশে। ৭৫ থেকে ১০০ টন ইলিশ উঠেছিল জালে। কিন্তু এবার খরা। বৃষ্টিও দেখা মিলছিল না। আর দেখা মিলছিল না ইলিশেরও। শুক্রবার থেকে বৃষ্টি শুরু হতেই আশায় বুক বাঁধেন মৎস্যজীবীরা। অবশেষে ইলিশের দেখা মেলে। তবে তা নেহাতই সামান্য পরিমাণে।

গত দু-দিন দিঘা মোহনায় ইলিশ উঠেছে মাত্র ১৮ টন। আজ অবশ্য তার থেকে খানিকটা বেশি। আজ ১২ টন ইলিশ উঠেছে জালে। দিঘা মোহনায় গিয়ে দেখা গেল, ৫০০ থেকে ৬০০ গ্রামের ইলিশ বিক্রি হচ্ছে ৫০০-৬০০ টাকায়। ৭০০ থেকে ৯০০ গ্রামের ইলিশের দাম ৭০০-৮০০ টাকা। আর তার থেকে বেশি ওজন হলে ১০০০ থেকে ১২০০ টাকা কেজি দরে বিকোচ্ছে ইলিশ।

মৎস্যজীবীরা বলছেন, ইলিশের পরিমাণ গতবারের তুলনায় অনেকখানি কম। পরিস্থিতি অনুকূল হওয়ায় সবে ইলিশ উঠতে শুরু করছে। আবহাওয়া অনুকূল থাকলে এবার আস্তে আস্তে ইলিশের পরিমাণ বাড়বে বলে আশা তাঁদের।

বর্ষাকাল মানেই বাঙালির পাতে সাধের ইলিশ। এবার এখনও সেভাবে ইলিশে রসনা তৃপ্তি হয়নি। তাই অপেক্ষায় থাকা বাঙালির এত অল্পে মন ভরবে?