সাদ্দাম হোসেন, টিডিএন বাংলা, বৈষ্ণবনগর: বৈশাখ মাস পড়তেই শুরু হয়েছে প্রচন্ড গরম। শনিবার বৈষ্ণবনগরের তাপমাত্রা প্রায় ৩৬ ডিগ্রী, তীব্র রোদে শুকিয়ে গিয়েছে খাল বিল। বাদ যায়নি গঙ্গা। ফলে গঙ্গার নদীর চারিদিকে  বালির চর পড়ে গেছে। এই পরিস্থিতিতে মালদা জেলার বৈষ্ণবনগর থানার ফারাক্কা ব্যারেজের নিকটে  গঙ্গা নদীর পারলালপুর ঘাটে গঙ্গার চরে কুমিরের দেখা মেলে।
তারপর স্থানীয়রা কুমিরটিকে ধরে ফেলে। কুমিরটিকে দেখতে কৌতূহলী জনতা ভীড় জমায়। ঘটনাস্থলে ছুটে আসেন বৈষ্ণবনগর থানার পুলিশ। পরে বন বিভাগের আধিকারিকরা হাতে  কমিরটিকে  তুলে দেওয়া হলে তারা কুমীরটিকে নিরাপদ স্থানে নিয়ে যায়।
জানা যায় শনিবার ভোর ৪টা নাগাদ ভাদু চৌধুরী , মহাদেব চৌধুরী, সদায় চৌধুরী গঙ্গায় মাছ ধরতে টানা জাল ফেলে, তারপর জালের মধ্যে এক মাছুঁয়া কুমীরটিকে প্রথমে দেখে বিস্মিত হয়। তারপর তারা  ফাঁদ পেতে কুমিরটিকে ধরে ফেলে।
ঈশারুদ্দিন নামে এক ব্যক্তি জানান, তিনজন ব্যক্তি ভোর ৪টা নাগাদ পারলালপুর ঘটে মাছ ধরতে নামে। তারপর তাদের জাল থেকে একটি কুমির উদ্ধার করা হয়, অতপর প্রশাসনকে জানানো হলে ঘটনা স্থলে ছুটে আসে বৈষ্ণবনগর থানার পুলিশ। কুমিরটিকে দেখতে ধূলিয়ান, পারলালপুর থেকে ছুটে আসেন হাজার হাজার স্থানীয় লোকজন।