নিজস্ব সংবাদদাতা, টিডিএন বাংলা, মুর্শিদাবাদ: ভোটের ফল বেরোতেই রদবদল । সরিয়ে দেওয়া হলো মুর্শিদাবাদের তৃণমূল সভাপতি সুব্রত সাহাকে। নতুন সভাপতি হিসাবে নিয়োগ করা হলো সদ্য নির্বাচিত মুর্শিদাবাদ লোকসভার সাংসদ আবুতাহের খানকে। আজ শনিবার কালীঘাটে তৃণমূলের পর্যালোচনা বৈঠকের পরেই এই সিদ্ধান্ত জানিয়ে দেওয়া হয়। বহরমপুর কেন্দ্রে হারের জন্যই কি জেলা সভাপতি পরিবর্তন? শুরু হয়েছে গুঞ্জন।   
   উল্লেখ্য মান্নান হোসেন মারা যাবার পর সাগড়দিঘির বিধায়ক সুব্রত সাহাকে জেলা সভাপতি করা হয়েছিল। দীর্ঘদিন জেলার সংগঠন পরিচালনা করলেন তিনি। এবারের লোকসভা নির্বাচনে মুর্শিদাবাদ জেলার তিনটি আসন জয়ের চ্যালেঞ্জ নিয়েছিল তৃণমূল। বহরমপুর লোকসভাকেই কার্যত পাখির চোখ করে একাধিক জনসভা করেছেন স্বয়ং মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। মাটি কামড়ে পড়েছিলেন শুভেন্দু অধিকারীও। কিন্তু তারপরেও অধীর চৌধুরীকে হারানো যায়নি।শুধু তাই নয়, যে বহরমপুর শহরে জেলা তৃণমূলের নেতাদের বসবাস সেখানেই বিপুল ভোটে পিছিয়ে গিয়েছেন তৃণমূল। স্বভাবতই জেলাজুড়ে নেতাদের বিরুদ্ধে মমিশ্র প্রতিক্রিয়া লক্ষ করা যায়। অন্যদিকে সদ্য তৃণমূলে আসা নওদার প্রাক্তন বিধায়ক আবুতাহের খানকে মুর্শিদাবাদ কেন্দ্রে প্রার্থী করে তৃণমূল। সেখানে জয় ছিনিয়ে নিয়ে আসেন তিনি। শুধু তাই নয়, তার ছেড়ে দেওয়া বিধানসভা আসনেও তৃণমূল প্রার্থীকে জয়ী করেন আবুতাহের খান। ফলে রাজনৈতিক মহলের ধারণা আবুতাহের খানের রাজনৈতিক বিচক্ষণতার জেরেই তাকে জেলা সভাপতি করে চমক দিল তৃণমূল।