নিজস্ব সংবাদদাতা, টিডিএন বাংলা, মুর্শিদাবাদ: বাবা মারা গেলেও হাল ছাড়েননি, এবছর মাধ্যমিক পরীক্ষা দিয়ে পাশ করলো রাজস্থানে খুন হওয়া মালদার আফরাজুল খানের এতিম ছোট মেয়ে হাবিবা খাতুন। তার মোট প্রাপ্ত নম্বর ২০৩। এবছর জালালপুর হাইস্কুল থেকে পরীক্ষায় বসেছিল সে। শোকের আবহয়েও মেয়ে মাধ্যমিক পাশ করায় খুশি হাবিবার মা গুলবাহার বিবি।

উল্লেখ্য, ২০১৭ সালে রাজস্থানে কাজ করতে গিয়ে প্রকাশ্যে আগুনে পুড়িয়ে খুন করা হয় মালদার কালিয়াচকের জালালপুরের আফরাজুল খানকে। সোশ্যাল মিডিয়ায় সেই দৃশ্য ভাইরাল হতেই দেশজুড়ে নিন্দার ঝড় বয়েছিল। আজ সেই ঘটনার প্রায় দুই বছর অতিবাহিত হতে চললেও এখনও বিচার পায়নি আফরাজুল এর পরিবার। বাবার মৃত্যু শোক কে বারবার ভুলে যেতে চাইলেও এখনও সেই স্মৃতি ভেসে উঠতেই আঁতকে উঠেন ছোট মেয়ে হাবিবা খাতুন। এবছর বাবা হারার শোক নিয়েই মাধ্যমিক পরীক্ষা দিয়েছিল হাবিবা খাতুন। নম্বর কম হলেও পাশ করায় খুশি আফরাজুল এর ছোট মেয়ে হাবিবা। মেয়ে পাস করায় খুশি হাবিবার মাও।

ভোটের রেজাল্টের ঠিক দুদিন আগে নিজের রেজাল্ট নিয়ে সন্তুষ্টি প্রকাশ করে হাবিবা জানায়, বাবার শোক নিয়েও কষ্ট করে পড়াশুনা করে পরীক্ষায় বসেছিলাম। পাশ করায় আমি খুশি। অন্যদিকে হাবিবার মা গুলবাহার বিবি জানায়, ছোট মেয়ে হাবিবা খুব কষ্ট করেই পড়াশুনা করেছে। পাশ করায় আমি খুশি।