কৌশিক সালুই, টিডিএন বাংলা, বীরভূম :  ঘাস কাটতে গিয়ে পিছলে পড়ে যায়  পঞ্চম শ্রেণীর ছাত্রী সমু মাল। হাতের কাস্তে ঢুকে যায় তার গালে। সঙ্গে তাকে নিয়ে আসা হয় রামপুরহাট সুপার স্পেশ্যালিটি হাসপাতালে। ডাঃ তরুন কান্তি কর এর নেতৃত্বে এমারজেন্সি ওটি তে তড়িঘড়ি অস্ত্রপ্রচার করা হয় ওই ছাত্রীর।

আপাতত বছর বারোর ঐ ছাত্রীটি সুস্থ রয়েছে বলে জানা গেছে। ঘটনাটি ঘটেছে বীরভূম লাগোয়া ঝাড়খন্ডের ধমকাপাড়া পঞ্চায়েতের ঘনশ্যামপুর গ্রামে। আজ বেলা ৩টে নাগাদ কয়েক সঙ্গীর সাথে বাড়ীর গবাদী পশুর জন্য ঘাস কাটতে যায় সমু। তারপরই ঐ দুর্ঘটনাটি ঘটে।

আহত এই ছাত্রীর মা শাওনী মাল জানান, বাড়ির গবাদী পশুর জন্য ঘাস কাটতে গিয়ে এই বিপদ ঘটেছে। কাস্তে গালে ঢোকা অবস্থায় রামপুরহাট হাসপাতালে নিয়ে এলে ডাক্তারবাবুরা অপারেশন করে। আপাতত আমার মেয়ে সুস্থ।”

রামপুরহাট সুপার স্পেশ্যালিটি হাসপাতালের ইএনটি বিভাগের ডাক্তার তরুন কান্তি জানান, “অপরাশেন সফল হয়েছে, তবে পরে মেয়েটির মুখমন্ডলের পরীক্ষা করাতে বাইরে যেতে হতে পারে। ঐ পরীক্ষা গুলি আপাতত আমাদের এখানে চালু হয় নি। খুব শীঘ্রই হয়ে যাবে। আপতত বাচ্চাটি সুস্থ রয়েছে।