নিজস্ব প্রতিনিধি, টিডিএন বাংলা, বীরভূম: এবার বিশ্বভারতী কাণ্ডে সরাসরি বাম ছাত্র সংগঠন কে হুমকি দিলেন বীরভূম জেলা তৃণমূল সভাপতি অনুব্রত মণ্ডল। শুক্রবার বীরভূমের মহঃ বাজারের কালিতলা মাঠে তৃনমূলের এনআরসি ও নাগরিকত্ব সংশোধন আইন নিয়ে জনসভা থেকে সাংবাদিক সম্মেলনে অনুব্রত মণ্ডল বলেন,” বিশ্বভারতী বিশ্ববিদ্যালয়ের বর্তমান সমস্যা চলছে তা নিয়ে আমাদের শিক্ষা মন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় উপাচার্যের সঙ্গে কথা বলেছেন। পাশাপাশি বাম ছাত্র সংগঠন যাদবপুর থেকে লোক নিয়েছে বিশ্বভারতীতে মস্তানি করছে সেটা কোনোভাবেই বরদাশ্ত করা হবে না। আমি বিশ্বভারতী নিয়ে কোনদিনই মাথা ঘামায় না। ওদের থেকে তিনগুণ বেশি মস্তান বোলপুরে আছে। বিশ্বভারতী বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য নড়বড়ে। বাড়ির অভিভাবক যদি দুর্বল হয় তাহলে যেমন বাড়ির অবস্থা হবে ঠিক সেরকম বিশ্বভারতী বিশ্ববিদ্যালয়ের বর্তমান অবস্থা”।

অনুব্রত মণ্ডল বিজেপিকে আক্রমণ করে বলেন, “দুটো মাথামোটা তারা ভারতবর্ষকে শেষ করতে চলেছে। কিন্তু ভারতবর্ষকে শেষ করা যায় না। ভারতবর্ষের মাটি খুব শক্ত। ভারতবর্ষে অন্ধকার ডেকে এনেছে এই দুই মাথামোটা। ওরা এনআরসি ও করতে পারবে না, ক্যা ক্যা ও করতে পারবে না।”

এদিনের তৃনমূলের ডাকা জনসভায় প্রধান বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন অনুব্রত মণ্ডল। এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন কৃষি মন্ত্রী আশীষ বন্দ্যোপাধ্যায়, তৃনমূলের জেলা সহ সভাপতি অভিজিৎ সিংহ, বিধায়ক নীলাবতী সাহা সহ তৃনমূলের নেতা নেত্রীরা। বক্তারা প্রত্যেকেই এন আর সি নিয়ে মোদী সরকারের তীব্র সমালোচনা করেন। পুরাতন গ্রাম থেকে প্রায় ২০০ জন ও মহম্মদবাজার থেকে ৫০০ জন তৃণমূলে যোগদান করেন। তাদের হাতে দলীয় পতাকা তুলে দেন অনুব্রত মণ্ডল।