টিডিএন বাংলা ডেস্ক : সাহিত্য জগত থেকে আরও এক নক্ষত্রের পতন। প্রয়াত হলেন বিশিষ্ট সাহিত্যিক অতীন বন্দ্যোপাধ্যায়। ‘নীলকণ্ঠ পাখির খোঁজে’র প্রণেতা অতীন বন্দ্যোপাধ্যায়ের প্রয়াণে বিরাট শূন্যতা তৈরি হল বাংলার সাহিত্য জগতে। বার্ধক্যজনিত কারণে তাঁর প্রয়াণ হল শনিবার। ৮৫ বছর বয়সে তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করলেন।

১৯৩৪ সালে ঢাকায় জন্ম অতীন বন্দ্যোপাধ্যায়ের। অবিভক্ত বাংলায় তাঁর ছেলেবেলা কেটেছে ঢাকায়। দেশভাগকে তিনি নিজের চোখে দেখেছেন। দেশভাগের পর তিনি চলে আসেন এপার বাংলায়। কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে তিনি স্নাতক হন। তারপরই নিজেকে নিয়োজিত করেন সাহিত্য জগতে। সাংবাদিকতা থেকে শুরু করে কারখানার ম্যানেজারের মতো একাধিক পেশায় তিনি যুক্ত ছিলেন।

সাহিত্য জগতে তাঁর অবদান সুদূরপ্রসারী। উপন্যাসের পাশাপাশি তিনি বহু ছোটগল্প লিখেছেন। বহরমপুরের এক স্থানীয় ম্যাগাজিন অবসরে তাঁর প্রথম লেখা প্রকাশিত হয়েছিল। সাহিত্য জগতে তাঁকে আলাদা মাত্রায় পৌঁছে দিয়েছিল ‘নীলকণ্ঠ পাখির খোঁজে’। তারপর থেকেই অতীন বন্দ্যোপাধ্যায়ের কলম থেকে বের হয় ‘মানুষের ঘরবাড়ি’, ‘ঈশ্বরের বাগান’, ‘অলৌকিক জলযানে’র মতো অনন্য সৃষ্টি।

তাঁর লেখনীর মধ্যে বারবার উঠে এসেছে দেশভাগের কথা, সর্বহারাদের যন্ত্রণার কথা। এছাড়াও তিনি লিখেছিলেম ‘হীরের চেয়েও দামি’, ‘নীল তিমি’, ‘রাজার বাড়ি’, ‘উড়ন্ত তরবারি’র মতো অজস্র কিশোর উপন্যাসও। তিনি সাহিত্য অ্যাকাডেমি পুরস্কারে সম্মানিত হন। তাঁর প্রয়াণে শোকের ছায়া নেমে আসে সাহিত্যিক মহলে।