সোহেল রানা, টিডিএন বাংলা, সামশেরগঞ্জ:  পেশায় শ্রমিক, ভাষা বাংলা, নাম আফরাজুল। লাভ জেহাদের নামে প্রকাশ্যে দিবালোকে কুপিয়ে, জ্যান্ত পুড়িয়ে মারলো ধর্মের কারবারিরা। বিজেপি শাসিত রাজস্থানের ঘটনা। বৃহস্পতিবার থেকে মালদার দিনমজুর আফরাজুল খানের পৈশাচিক নৃশংসতার ভিডিও ভাইরাল হয়। সেই থেকে উত্তাল দেশ।

 

 

৪৯ বছর বয়সী আফরাজুল নাকি লাভ জিহাদ করেছিল। আর সেই জন্য নাকি তাকে খুন করা হয়। কিন্তু মিডিয়ার এই বানোয়াট তথ্য কে খারিজ করে দিয়েছেন আফরাজুলের পরিবার। ঐ নৃশংসতাকে পরিকল্পিত ভাবে খুন বলে মনে করেছেন পরিবার থেকে গ্রামের মানুষ। আফরাজুলের খুনের শাস্তির দাবিতে শুরু হয়েছে আন্দোলন।

 

বিভিন্ন জায়গাতে অনুষ্ঠিত হয়েছে  মানব বন্ধন। শুক্রবার মানব বন্ধন দেখা গেল মুর্শিদাবাদের বাসুদেবপুর বাসস্ট্যান্ডেও। সেখানে এলাকার শান্তিপ্রিয় মানুষেরা সারিবদ্ধ ভাবে দাঁড়িয়ে এই ঘটনার তীব্র ধিক্কার জানায়।

মাওলানা নুরুল ইসলাম এদিন টিডিএন বাংলাকে বলেন, এই ধরনের ঘটনা গোটা মানব জাতির লজ্জা। এ লজ্জা দেশের লজ্জা। অবিলম্বে খুনীদের দৃষ্টান্ত মুলক শাস্তিরও দাবি জানানো হয় ওই মানব বন্ধন থেকে।