কৌশিক সালুই, টিডিএন বাংলা, বীরভূম : রাত পোহালেই শুরু হবে বাড়ির বড় ছেলের বিয়ের অনুষ্ঠান। ইতিমধ্যেই আত্মীয়-স্বজন আসতে শুরু করেছেন বাড়িতে সেই মাঙ্গলিক অনুষ্ঠান উপলক্ষে। আর তার আগেই ঘটে গেল মর্মান্তিক দুর্ঘটনা। রান্নার গ্যাসের সিলিন্ডারের আগুন থেকে ভষ্মিভূত হয়ে গেল পুরো বাড়ি। আগুনের লেলিহান শিখায় পুরো বাড়ির সঙ্গে সঙ্গে বিয়ের আয়োজনের সবকিছুই পুড়ে ছাই হয়ে গেল।

যদিও এই দুর্ঘটনা যাতে বিয়ের কোনো অনুষ্ঠানে সমস্যা না হয় তার জন্য নতুন করে উদ্যোগ শুরু করেছে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবার। লগ্ন মতোই হবে সবকিছুই। ঘটনাটি ঘটেছে বুধবার সকালে বীরভূমের মহম্মদ বাজার থানার ডেউচা গ্রামে।
ওই গ্রামের বাসিন্দা বিদ্যাধর বরাড। তিনি সেচ দপ্তরের কর্মী। আগামী শুক্রবার তার বড় ছেলে গৌরী শঙ্কর বরাডের বিয়ে। দুদিন আগেই বাড়িতে আগুন লেগে সর্বস্ব হারা হলেন তিনি। ঘটনায় আহত হয়েছেন বিদ্যাধর বাবুর ছোট ছেলে শুভ শংকর বরাড। গুরুতর জখম অবস্থায় সিউড়ি সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

বিদ্যাধর বাবু বলেন, এদিন সকাল ১০টা নাগাদ দুর্ঘটনাটি ঘটে। গ্যাসের ওভেনের সাথে একটি নতুন গ্যাস সিলিন্ডার লাগিয়ে ওভেনটিকে জ্বালানোর চেষ্টা করছিলেন। কিন্তু তিনি বুঝতে পারেননি সিলিন্ডার থেকে গ্যাস লিক করছে।ফলে ওভেনে আগুন দেওয়া মাত্র দাউদাউ করে জ্বলে ওঠে সিলিন্ডারটি।প্রথমে নেভানোর চেষ্টা করলেও আগুনের তীব্রতা এতটাই ছিলো কিছু ক্ষনের মধ্যে সেই আগুন গোটা বাড়ি ছড়িয়ে পড়ে। আগুন দেখে ছুটে আসে গ্রামবাসীরা। ঘটনার স্থলে পৌঁছায় দমকলের একটি ইঞ্জিন।এরপর স্থানীয় বাসিন্দা ও দমকল বাহিনীর কয়েক ঘন্টা প্রচেষ্টায় আগুন নেভায়।

বিধ্বংসী আগুন এর পুড়ে ছাই হয়ে গিয়েছে কনের বেনারসী, পাত্রের ধুতি পাঞ্জাবি, আত্মীয় এবং কনে পক্ষের লোকজনের দেওয়ার জন্য যে জামা কাপড় কেনা হয়েছিল তাও বাদ যায়নি। গায়ে হলুদের তত্ত্বের ডালা সাজানো হয়েছিল তাও ছাই হয়ে গিয়েছে। বাড়িতে ছিল নগদ কুড়ি হাজার টাকা সেটাও বাদ যায়নি। একমাত্র কনের সোনার গহনা সেটি অক্ষত অবস্থায় পাওয়া গিয়েছে। আগুনে লক্ষাধিক টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে।