নিজস্ব সংবাদদাতা, টিডিএন বাংলা, উলুবেড়িয়া : সারা ভারতবর্ষ জুড়ে বিক্ষিপ্ত ভাবে ঘটে চলা অসহায়, নিপীড়িত, শোষিত, নির্যাতিত মানুষের পাশে দাড়ানোর ডাক দিল ছাত্র সংগঠন এসআইও। গত ১৬ই আগষ্ট থেকে শুরু হওয়া “মানবীয় মর্যাদা ক্যাম্পেন” শীর্ষক এই প্রোগ্রাম চলবে আগামী ৩০ শে আগষ্ট পর্যন্ত। এই ক্যাম্পেনের অংশ হিসাবেই আজ এক প্রেস কনফারেন্সের আয়োজন করে এসআইও হাওড়া জেলা শাখা। উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের জেলা সভাপতি ইমরান হোসেন, জেলা কমিটির সদস্য তথা প্রাক্তন জেলা সভাপতি আরিফুল সেখ, এছাড়াও ছিলেন বিশিষ্ট শিক্ষক জুলফিকার আলি মোল্লা। ইমরান হোসেন বর্তমান ভারতবর্ষের সাম্প্রদায়িক পরিস্থিতির উপর আলোকপাত করেন। আখলাখ হত্যা, রোহিত হত্যা, নাজিব-এর গুম হয়ে যাওয়া থেকে শুরু করে প্রায় প্রতিদিনই ঘটে চলা বিভিন্ন অপ্রীতিকর ঘটনার উল্লেখ করে তিনি সংখ্যালঘু তথা দলিত, মুসলিমদের উপর অত্যাচারের চিত্র তুলে ধরেন। তিনি আরও বলেন, ‘ছাত্রসমাজ দেশের মেরুদন্ড, দেশের ভবিষ্যত নির্ভর করছে আজকের বর্তমান ছাত্রদের উপর।

এই চরম সময়ে যেখানে দেশ খুব খারাপ পরিস্থিতির দিকে এগিয়ে চলেছে, কারোর ধর্ম কারোর খাদ্যাভাস কারোর পোশাক যেখানে মৌলিক বিষয় হয়ে উঠছে সমাজের এক শ্রেণির মানুষের কাছে, মানুষের মৌলিক অধিকার যেখানে লুন্ঠিত হচ্ছে ব্যাপক ভাবে, সেখানে ছাত্রসমাজ কখনো চুপ থাকতে পারে না, পারে না নীরব দর্শকের ভূমিকা পালন করতে। সমাজের প্রতি ছাত্রসমাজের এই দায়বদ্ধতাকে সজাগ করতেই এসআইও এই ক্যাম্পেন করতে চলেছে।’ সমগ্র জেলা জুড়ে পথসভা, সেমিনার, ছাত্র বৈঠক, র‍্যালি, কনভেনশন ইত্যাদির মাধ্যমে যুবসমাজের কাছে একটি স্বচ্ছ বার্তা পৌছানোই এসআইও-র মূল লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য বলে জানান তিনি। উপস্থিত ছাত্রনেতারা দেশের কল্যাণকামী আপামোর শিক্ষিত মহলকে আগামী ৩০শে আগষ্ট কলকাতার রাণি রাসমণি রোডের বিশাল সমাবেশে থাকার আহবান জানিয়ে আজকের সাংবাদিক সম্মেলন শেষ করেন।