টিডিএন বাংলা ডেস্ক: দলের হুইপ ছিল বাধ্যতামূলক উপস্থিতির। তারপরেও সোমবার লোকসভায় নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল পেশ নিয়ে ভোটাভুটির সময় গরহাজীর আটজন তৃণমূল সাংসদ। মোট ২২জন সাংসদের মধ্যে এতজন সাংসদ কেন অনুপস্থিত ছিলেন বিল পাশ নিয়ে ভোটাভুটিতে তা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে তৃণমূলের অন্দরমহলেও। সোমবার লোকসভায় ভোটাভুটির সময়ে যারা উপস্থিত ছিলেন না তারা হলেন, শিশির অধিকারী, দিব্যেন্দু অধিকারী, মিমি চক্রবর্তী, নুসরাত জাহান, সাজেদা আহমেদ, খলিলুর রহমান, চৌধুরী মোহন জটুয়া এবং দেব। ভোটাভুটির সময়ে না থাকলেও পরে তৃণমূল সাংসদদের কয়েকজন সভায় প্রবেশ করেন।

কেন তিনি দিল্লী আসেননি ? এই প্রশ্নের উত্তরে দিব্যেন্দু অধিকারী তমলুক থেকে ফোনে বলেন, দলনেত্রীকে জানিয়েই যা করার করেছি। মুখ্যমন্ত্রীর একটি প্রশাসনিক বৈঠক ছিল, সেখানে উপস্থিত ছিলাম তাই যেতে পারিনি সংসদে। দিব্যেন্দু ফোনে প্রশাসনীক বৈঠকের কথা বললেও সংসদে এসেও কেন ভোটাভুটির সময় উপস্থিত ছিলেন না তা নিয়ে কোনো প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি তৃণমূল সাংসদ নুসরাত জাহান ও চৌধুরী মোহন জাটুয়ার থেকে। তাদের সাথে বারবার যোগাযোগের চেষ্টা ব্যর্থ হয়েছে। এর আগে সংবিধান দিবসের দিন তৃণমূল সাংসদ নুসরাত জাহান দলের নির্দেশ অমান্য করে সংসদের সেন্ট্রাল হলে যৌথ অধিবেশনে উপস্থিত হয়ে গিয়েছিলেন।( সৌজন্য : এই সময়)