কৌশিক সালুই, টিডিএন বাংলা, বীরভূম: সেচ ক্যানেলের জল থেকে এক ইঞ্জিনিয়ারিং পড়ুয়ার মৃতদেহ চাঞ্চল্য এলাকায়। সিউড়ি থানার কেন্দুয়াতে। পরিবারের পক্ষ থেকে দুই বন্ধুর নামে খুনের অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। পুলিশ দুই বন্ধুকে গ্রেপ্তার করে ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে মৃত ইঞ্জিনারিং পড়ুয়া হলেন অভিষেক ভট্টাচার্য।(২০)। সে সিউড়ি ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজের বি-টেক এর তৃতীয় বর্ষের ছাত্র ছিল। বাড়ি সিউড়ি শহরের ডাঙ্গাল পাড়া এলাকায়। গত সোমবার বিকেলে দুই বন্ধু রাকেশ রায় এবং ইন্দ্রজিৎ মহারার সঙ্গে অভিষেক ঘুরতে বেরিয়ে ছিল। ওই বন্ধুদের দাবি কেন্দুয়ার ময়ুরাক্ষী নদী সেচ ক্যানেলে স্নান করতে গিয়ে তলিয়ে যায় অভিষেক। ঘটনার খবর পেয়ে সিউড়ি থানার পুলিশ ও দমকল বাহিনী গভীর রাত্রে মৃতদেহটি ওই সেচ ক্যানেল এর জল থেকে উদ্ধার করে। মৃতদেহটি সিউড়ি সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে ময়না তদন্তের পর পরিবারের হাতে তুলে দেওয়া হয় এবং মঙ্গলবার বিকেলে মৃতদেহ সৎকার করা হয়। তরুণের পরিবারের পক্ষ থেকে ওই দুই বন্ধুর নামে খুনের অভিযোগ দায়ের করা হয় এবং সিউড়ি থানার পুলিশ তাদেরকে গ্রেফতার করে। সিউড়ি থানার আইসি দেবাশীষ পান্ডা বলেন,” ওই তরুণের পরিবারের পক্ষ থেকে দুই জনের নামে খুনের অভিযোগ হয়েছে এবং দুজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে”।