নিজস্ব সংবাদদাতা, টিডিএন বাংলা, কলকাতা : বাংলাদেশের একটি ফেসবুক থেকে প্রচার করা হয় যে, কলকাতার বেকার হোস্টেল থেকে শেখ মুজিবর রহমানের মূর্তি সরানো হয়েছে। এই খবর সঠিক নয়। কিছু বিখ্যাত কবি, সাংবাদিক বিষয় নিয়ে মিথ্যে প্রচার করছেন। টিডিএন বাংলার সাংবাদিক হোস্টেলে গিয়ে খোঁজ নিয়ে দেখেছেন, মূর্তি এখনও আছে। মুসলিম হোস্টেলে মূর্তি রাখার বিরোধী সংখ্যালঘু যুব ফেডারেশনের মুহাম্মদ কামরুজ্জামান টিডিএন বাংলাকে বলেন,”এমন কোনও খবর নেই।” হোস্টেল সুপার ডঃ দবির আহমেদ থেকে হোস্টেলের ছাত্র সকলেই জানাচ্ছেন,মূর্তি সরানো হয়নি। তবে কেন এই মিথ্যে প্রচার ? কেন এই গুজব ? শুধু বাংলাদেশের মিডিয়া নয়, এই বাংলার কমিউনিস্ট লেখিকা মন্দা ক্রান্তা সেন ফেসবুকে লিখেছেন,”বেকার হোস্টেল থেকে বঙ্গবন্ধুর ছবি সরিয়ে নেওয়া হলো, কারন ইসলাম ধর্মাবলম্বীরা মূর্তি ও ছবির বিরোধী।” মন্দা ক্রান্তা সেনের মতো কবি কোনও রকম সত্য যাচাই না করে মিথ্যা প্রচার করছেন কেন ?হ্যাঁ, বঙ্গ বন্ধুর মূর্তি সরানোর দাবি উঠেছে। কিন্তু সরানো হয়েছে বলে যে প্রচার করছেন বিখ্যাত লোকেরা তাতে প্রশ্ন উঠছে, কেন এই মিথ্যাচার ?খ্যাতিমান কবি যদি মিথ্যা প্রচার করেন তবে সাধারণ মানুষ কী করবেন ? শুধু এটা নয়, এর আগেও বাংলাদেশের কিছু মিডিয়া ও ব্যাক্তি বিভিন্ন বিষয়ে গুজব ছড়িয়েছেন। একটি নোংরা রাজনীতি করতেই অন্ধ দাসত্ব থেকে এইসব করা হয়।