নিজস্ব সংবাদদাতা, টিডিএন বাংলা, কলকাতা: মানুষ যাতে স্বাভাবিক জীবনযাত্রা করতে পারে সেজন্য কনটেইনমেন্ট জোনে বদল এনেছে কলকাতা পুরসভা। বৃহস্পতিবার কলকাতা পুরসভার প্রশাসক বোর্ডের প্রধান ফিরহাদ হাকিম বলেন, সাধারণ মানুষের রুজি-রুটির বন্দোবস্ত করতে হবে। তারা যাতে কাজকর্ম করতে পারে সেজন্য গোটা এলাকা এখন আর কনটেইনমেন্ট জোন করা হবে না। যে বাড়িতে করোনা আক্রান্ত হবে সেই বাড়ি কনটেন্টমেন্ট জোন করা হবে কিংবা যে কমন বাথরুম ব্যবহার করা হয় তা কনটেইনমেন্ট জোনের আওতায় আনা হবে। ছোট বসতি হলে সে ক্ষেত্রে গোটা বস্তিই কনটেইনমেন্ট জোন করা হবে। আবাসনের ক্ষেত্রে একের অধিক করোনা আক্রান্ত হলে গোটা আবাসন কনটেইনমেন্ট জোন করা হবে। কলকাতা পুরসভার প্রশাসক বোর্ডের প্রধান ফিরাদ হাকিম বলেন মানুষের স্বাভাবিক জনজীবন শুরু না হলে অর্থনীতিতে চরমভাবে বিপর্যয় নেমে আসবে। সাধারণ মানুষের কাজ বন্ধ হয়ে গেলে চরম দুর্দশা আরো বাড়বে। সেই কারণে কলকাতা পুরসভা করোনা মোকাবিলায় নয়া পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে।

এদিন ডেঙ্গু এবং করোনা মোকাবিলায় কলকাতা পুরসভা কি কি পদক্ষেপ গ্রহণ করবে তা নিয়ে স্বাস্থ্য বিভাগের বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। অতীন ঘোষের সভাপতিত্বে এই বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন ফিরহাদ হাকিম সহ কলকাতা পুরসভার অন্যান্য কর্তারা। কলকাতা পুরসভা করোনা পরিস্থিতি এবং ডেঙ্গু কিভাবে মোকাবিলা করবে কলকাতা পুরসভার স্বাস্থ্য বিভাগ এবং ওয়ার্ড অফিস অফিসের স্বাস্থ্যকর্মীরা কিভাবে এই করোনা ও ডেঙ্গু নিয়ে কাজ করবে তার নীতি নির্ধারণ হয় এ দিনের বৈঠকে। জানিয়েছেন ফিরহাদ হাকিম।