টিডিএন বাংলা ডেস্ক : নতুন বাইক ও মোবাইল কিনে দিতে হবে মাধ্যমিক পরীক্ষার্থীকে৷ তা দিতে না চাওয়ায় নিজের মা-এর গায়ে কেরোসিন ঢেলে পুড়িয়ে মারার চেষ্টা করল ওই কিশোর বিক্রম। তার মা সুরভীর অবস্থা এখনও সঙ্কটজনক। বর্তমানে তিনি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন৷

ছেলে বিক্রমকে নিয়ে নিউ টাউনে থাকতেন তিনি। জগতপুরে একটি শাড়ির দোকান সুরভী মান্নার। মাধ্যমিক পরীক্ষা দেওয়ার কথা ছিল বিক্রমের। ঘটনার পর বিক্রম বন্ধুর বাড়িতে পালিয়ে গেলেও পুলিশ তাঁকে আটক করে। এখন সে পুলিশের হেফাজতে রয়েছে।

জানা গিয়েছে, কিছুদিন আগেই বিক্রমকে বাইক কিনে দেন তার মা। কিন্তু মাধ্যমিক পরীক্ষার আগে আবার নতুন বাইক এবং মোবাইল কেনার হুজুক তোলে সে। তার হুজুকে রাজি না হওয়ার সোমবার মা-এর গায়ে কেরাসিন তেল ঢেলে আগুন জ্বালিয়ে একটা ঘরে আটকে দেয় বিক্রম।

প্রতিবেশীরা সুরভীকে উদ্ধার করে আরজি কর হাসপাতালে ভর্তি করে।