টিডিএন বাংলা ডেস্ক: অবশেষে পুলিশের জালে মদ ব্যবসার মূল পাণ্ডা গনেশ হালদারকে। বৃহস্পতিবার শান্তিপুর এলাকা থেকেই তাকে গ্রেফতার করা হয়।
এদিকে সরকার তদন্তে নেমে সিআইডিকে কাজে লাগায়। শান্তিপুর থানার ওসি, ইনস্পেক্টর সহ অনেককে সরিয়ে দেওয়া হয়। এর পাশাপাশি কয়েকজনকে গ্রেফতার করা হয়। ধৃতদের জেরা করেই গণেশ হালদারের খোঁজ পায় পুলিশ। এরপরে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

শান্তিপুর নৃসিংহপুর চৌধুরিপাড়া বিষ মদ খেয়ে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা পর্যন্ত ১২জন মারা গিয়েছেন। বৃহস্পতিবার সকালে গঙ্গাধর ওরফে গদাধর মাহাতো ও কৃষ্ণ মাহাতোর মারা যাওয়ার খবর জানিয়েছেন রানাঘাটের মহকুমাশাসক মনীশ বর্মা। এদিনও ৪-৫জন শান্তিপুর স্টেট জেনারেল হাসপাতালে পেটে জ্বালা,বমি নিয়ে ভর্তি হয়েছেন। শান্তিপুর হাসপাতালে ১৯জন ভর্তি রয়েছেন। ৪জন কে এস এস কে এম ও ৬জন কে এন আর এস হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। কৃষ্ণনগরে শক্তিনগরের সুরেশ মাহাতো ভর্তি রয়েছেন। তার অবস্থা ‌আশঙ্কাজনক বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকরা। সন্ধ্যায় একজনকে কল্যাণী মেডিক্যাল কলেজে স্থানান্তরিত করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন শান্তিপুর হাসপাতালের সুপার ডা. জয়ন্ত বিশ্বাস।