নিজস্ব সংবাদদাতা, টিডিএন বাংলা, মুর্শিদাবাদ: “রাম এসেছিল নিজের স্ত্রীকে রক্ষা করতে, আর মোদী তার স্ত্রীকে রক্ষা করতে পারেনি, পরিত্যাগ করেছে। সেই মোদিই আবার রামের নাম করে ভোট ভিক্ষে করছে। সুতরাং মোদীই সবচেয়ে বেশি রামকে অপমান করেছে।” মুর্শিদাবাদের ধূলিয়ানে বক্তব্য রাখতে গিয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ও বিজেপিকে তীব্র আক্রমন করলেন কলকাতা পুরসভার মেয়র তথা পুর ও নগর উন্নয়ন মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম। দক্ষিণ মালদার তৃণমূল প্রার্থী মোয়াজ্জেম হোসেন এর সমর্থনে বক্তব্য পেশ করতে গিয়ে বিজেপিকে একহাত নিয়ে তিনি বলেন, ভোটের সময় আসলেই বিজেপিরা রাম রাম করে। রাম এসেছিল নিজের স্ত্রীকে রক্ষা করতে, আর মোদি তার স্ত্রীকে পরিত্যাগ করেছে। সুতরাং মোদিই সবচেয়ে বেসি রামকে অপমান করেছে।

ভোটের সময় রামকে পোলিং এজেন্ট হিসাবে ব্যবহার করছে বিজেপি। বিজেপি শাসিত রাজ্য গুলোর চিত্র তুলে ধরে বলেন, উত্তরপ্রদেশে মুসলিমরা নিরাপদে ধর্ম পালন করতে পারছে না। বিজেপি হিন্দুত্বের নামে হিন্দু ধর্মকে অপমান করছে। তিনি বিজেপির প্রতিশ্রুতি নিয়ে বলেন, আচ্ছে দিন আসেনি। ১৫ লাখ আসেনি। নীরব মোদি কে টাকা দিয়ে বিদেশ পালিয়ে যেতে সাহায্য করে নিজেই চৌকিদার সেজেছে মোদী। এই চোর চৌকিদার এর দরকার নেই। মোদি নোট বন্দি করে দেশের মানুষকে বেকারত্বের দিকে ঠেলেছে বলেও তিনি মন্তব্য করেন। চার বছরে ৩৬ হাজার কৃষক আত্মহত্যা করেছে। গোটা ভারতের অস্তিত্ব বিক্রি করে দিতে চাইছেন মোদি।দেশকে ধংসের মুখে ঠেলে দিয়ে এখন চৌকিদার সাজছে। আসলে মোদি আমেরিকার দালাল। দেশবাসী তাকে ক্ষমা করবে না। অমিত শাহ কে আক্রমন করে বাংলায় এনারসি করতে দেওয়া হবে না বলে হুঁশিয়ারি দেন ফিরহাদ।

এদিন জনসভায় উপস্থিত ছিলেন দক্ষিণ মালদার প্রার্থী ডাঃ মোয়াজ্জেম হোসেন, বিধায়ক আমিরুল ইসলাম, পুরপিটা সুবল সাহা, পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি আনোয়ারা বেগম সহ অন্যান্য বিসিস্টরা।