টিডিএন বাংলা ডেস্ক: প্রাথমিক ও মাধ্যমিক স্তরে শিক্ষক নিয়োগে নতুন পরিকল্পনা রাজ্য সরকারের৷ কলেজ ও ইউনিভার্সিটি পাশ পড়ুয়াদের নিয়োগ করা হবে প্রাথমিক ও মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে৷ তবে পুরো বিষয়টি আপাতত বিবেচনাস্তরে রয়েছে বলে সোমবার নবান্নে জানান মুখমন্ত্রী৷ এছাড়াও পঞ্চম শ্রেণিকে প্রথমিক স্তরের অন্তর্ভুক্ত করা হতে পারে৷ সোমবার নবান্নে সমস্ত কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যদের নিয়ে বৈঠক করেন মুখ্যমন্ত্রী৷ সেখানেই এই সিদ্ধান্তের কথা ঘোষণা করেন মুখ্যমন্ত্রী৷

উচ্চ মাধ্যমিক ও প্রাথমিকে পড়ানোর জন্য ইনটার্নদের নিয়োগ করা হবে৷ সদ্য কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয় পাশ করা ছাত্র-ছাত্রীদেরই এই সুযোগ দেওয়া হবে৷ মুখ্যমন্ত্রী জানান, প্রাথমিক স্কুলের ক্ষেত্রে শিক্ষানবিশ শিক্ষকরা মাসিক দুই হাজার টাকা বেতন পাবেন। মাধ্যমিক স্কুলের শিক্ষানবিশ শিক্ষকরা পাবেন মাসে আড়াই হাজার টাকা করে বেতন। দুই বছরের জন্য চুক্তির ভিত্তিতে তাঁদের বহাল করা হবে। এই পদের জন্য ন্যূনতম স্নাতক পাশ করতে হবে বলেও তিনি জানান।

কিন্তু বেকারদের প্রশ্ন,দীর্ঘদিন ধরে নিয়োগ বন্ধ রেখে হটাৎ কেন তৃণমূল সরকার এমন সিদ্ধান্ত নিলো? একবার অবসর প্রাপ্তদের দিয়ে স্কুল চালানো তো আরেকবার ইন্টার্নশিপ,এইভাবে কতদিন চলবে? ঠিক কবে স্বাভাবিক নিয়মে নিয়োগ হবে? হাজার হাজার টেট পাশ ছেলেমেয়েদের ভবিষ্যত কী হবে? কবে নিয়োগ সম্পন্ন হবে?