নিজস্ব সংবাদদাতা, টিডিএন বাংলা, মুর্শিদাবাদ: নববর্ষের পরের দিনই পিছিয়ে পড়া গ্রামীন এলাকায় গিয়ে রোড শো তে ঝড় তুললেন জঙ্গিপুর লোকসভার ওয়েলফেয়ার পার্টির প্রার্থী ড. এস কিউ আর ইলিয়াস। মঙ্গলবার সুতি ব্লকের ব্যাংডুবি মোড় থেকে শুরু হয়ে বিভিন্ন গ্রামে বাইক মিছিল ও রোড শো করেন তিনি। ছাত্র যুবক থেকে শুরু করে বিড়ি শ্রমিক রাজমিস্ত্রি সহ বিভিন্ন পেশার মানুষ এদিনের মিছিলে যোগদান করেন। হিন্দু অধ্যুষিত বর্ডার লাগোয়া এলাকায় এই প্রথম কোনো প্রার্থীকে পেয়ে মিছিল দেখতে রাস্তার দুই ধারে ভীড় জমান হাজার হাজার মহিলা। প্রার্থি ইলিয়াসের সাথে এদিন রোড শো তে ছিলেন রাজ্য মহিলা নেত্রী শাহজাদী পারভীন, যুব নেতা আরাফাত আলী সহ অন্যান্য বিসিস্টরা। রাস্তার দুই ধারে দাঁড়িয়ে পুরুষ ও মহিলারা ওয়েলফেয়ার পার্টির প্রার্থীকে ফুলের মালা দিয়ে বরণ করে নেন। টর্চ লাইট চিহ্নে ভোট দেওয়ার আহ্বান জানিয়ে আকাশ বাতাস মুখরিত হয়ে উঠে সুতি ব্লক।

সকালের প্রথম ভাগেই এদিন মিছিল ব্যাংডুবি থেকে শুরু করে প্রদক্ষিণ করে বিভিন্ন গ্রাম। দেবীপুর, দহরপাহাড়, বাজিতপুর, ইসলামপুর, সুলতানপুর, লক্ষীপুর, ছাবঘাটি, কয়াডাঙ্গা, আলীনগর প্রভৃতি গ্রামে ব্যাপক সারা ফেলে ওয়েলফেয়ার পার্টির প্রচার। গ্রামবাসীরা ঘরের বাইরে বেরিয়ে আসেন প্রার্থীকে দেখতে। কেউ কেউ হাত বাড়িয়ে করমর্দন করেন, কেউবা ফুলের মালা নিয়ে স্বাগত জানান ইলিয়াস সাহেবকে। রাজ্য নেত্রী শাহজাদী পারভীন জঙ্গিপুরের বঞ্চনা নিয়ে নানারকম অভিনব স্লোগানে মাতিয়ে তুলেন রোড শো।

সুতি বিধানসভার ঔরাঙ্গবাদের কয়াডাঙা গ্রামে রাস্তার পাশেই একটি মন্দির। মন্দিরের পাশেই দাঁড়িয়ে ছিলেন হারাধন দাস, গণেশ দাসরা। এবারে ভোটে কি করবেন? জিজ্ঞেস করতেই তারা এলাকার বঞ্চনার তালিকা তুলে ধরে বললেন, এবারের ভোট হবে তৃণমূল মুক্ত। তৃণমূল বাদে বাকি যে দলগুলি আছে বিকল্প প্রার্থীকে ভোট দিয়ে জেতাতে চাইছি আমরা।

সুতি বিধানসভা এলাকায় বাইক মিছিল ও রোড শোঁ তে ব্যপক জনসমাগমে উচ্ছসিত ওয়েলফেয়ার পার্টির প্রার্থী ড. এস কিউ আর ইলিয়াস বলেন, জঙ্গিপুরের মানুষের সরলতাকে কাজে লাগিয়ে এখানে বিভিন্ন রাজনৈতিক দল সাধারণ মানুষকে বঞ্চনা ছাড়া কিছুই দেয়নি। তৃণমূলের জামানায় এলাকায় সন্ত্রাসের পরিবেশ তৈরি করেছে। জঙ্গিপুরের বঞ্চনার বিরুদ্ধে এবার জনতা জেগেছে। এবারের ভোটে উচিত শিক্ষা দেবে জঙ্গিপুরবাসী।