কৌশিক সালুই, টিডিএন বাংলা, বীরভূম: চোলাই মদ কারবার বন্ধ করতে গিয়ে আক্রান্ত হল প্রমিলা বাহিনী। ঘটনাটি ঘটেছে শনিবার বীরভূমের মহম্মদ বাজার থানার কুমোরপুর গ্রামে। প্রচুর পরিমাণ চোলাই উদ্ধারের সঙ্গে সঙ্গে কারবারিকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, কোমরপুর গ্রামের বাগদী পাড়ার বাসিন্দা মনোজিৎ বাগদি দীর্ঘদিন ধরে চোলাই মদের কারবার করে আসছিল বলে অভিযোগ। গ্রামের মহিলারা বারবার সতর্ক করা সত্ত্বেও ওই চোলাই মদের কারবারি তার কারবার জারি রেখেছিল। ওই মহিলারা গোপনে খবর পান যে চোলাই মদের কারবারি তার ঘরের ঠাকুর ঘরে চোলাই মদ লুকিয়ে রেখেছে। বাড়িতে গিয়ে হাজির হন তারা। প্রথমে অস্বীকার করলেও তারা বাড়ির ভেতর থেকে প্রথমে এক ড্রাম চোলাই বের করে নিয়ে এসে মাটিতে ফেলে দেয়।

আরও অভিযোগ, এই সময় মনোজিত প্রতিবাদী এক মহিলাকে মারধর করে। ওই মহিলারা সমবেত হয়ে মহাম্মদ বাজার থানার পুলিশকে খবর দেয়। পুলিশ এসে তার বাড়ি থেকে আরও চার ড্রাম চোলাই উদ্ধার করে এবং অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করে। এক প্রতিবাদী মহিলা বুলা পাল বলেন, বারবার নিষেধ করা সত্ত্বেও মনোজিত তার মদের কারবার করছিল। আমরা বাধ্য হয়ে তার বাড়িতে গিয়ে হাতেনাতে মদ ধরে ফেলি এবং পুলিশকে খবর দিই। এমন কি আমাদের এক মহিলাকে মারধর করে ওই ব্যক্তি।