নিজস্ব সংবাদদাতা, টিডিএন বাংলা, কলকাতা: পদযাত্রা করে শেষ হলো জামায়াতে ইসলামি হিন্দের সপ্তাহব্যাপি রাজ্য ‘শিশু-কিশোর উৎসব ২০১৭ ।২৪ ডিসেম্বর থেকে শুরু হওয়া তারার মহলের উৎসব শেষ হয়েছে রবিবার। এদিন রাজ্যের বিভিন্ন জায়গায় পদযাত্রা করে শিশুরা। প্ল্যাকার্ডে লেখা ছিল,আমরা বড়ো হতে চাই, মায়ের পায়ের তলায় জান্নাত, আমাদের অধিকার ফিরিয়ে দেওয়া হোক ইত্যাদি।


রবিবার সকালে রাজারহাটের গোপালপুরে শিশুদের পদযাত্রায় অংশ নেন জামায়াতে ইসলামি হিন্দের রাজ্য সভাপতি মুহাম্মদ নুরুদ্দিন। তিনি এই টিডিএন বাংলাকে বলেন, “গোটা রাজ্যে সাড়ম্বরে পালিত হয়েছে এবারের তারার মহলের সাত দিনের উৎসব।

মূলত শিশুদের প্রতিভার বিকাশ ঘটাতে এই কর্মসূচি নেওয়া হয়েছিল। শিশু-কিশোরদের দক্ষতা,কর্ম নৈপুণ্য এবং প্রতিভার প্রকাশ ঘটানোর সুযোগ প্রদান করে দিতেই এই উদ্যোগ। কেননা শিশু কিশোররা আমাদের উদীয়মান উজ্জ্বল ভবিষ্য।আগামীতে জাতিকে তারাই নেতৃত্ব দেবে।”


মুহাম্মদ নুরুদ্দিন আরও বলেন, “আসলে আমরা চাই, শিশু কিশোরদের মধ্যে ঈমানী চেতনা ও চরিত্রের মাধুর্য্য সৃষ্টি করা এবং দ্বীনকে সর্বোচ্চ শিখরে পৌঁছানোর জজবা তৈরি করা।”
‘আঁধার ভুবনে আলো জ্বলাই’ স্লোগান দিয়ে এই উৎসব হয়েছিল। বিভিন্ন জেলার প্রভাত ফেরি, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, ক্যুইজ কনটেষ্ট, ক্রীড়া,কলেমা দৌড়, স্মৃতি শক্তি পরীক্ষা, কিবলা নির্ণয় প্রভৃতি খেলা হয়েছে। উল্লেখ্য, প্রতিবছর শীত এলেই জামায়াতে ইসলামির পক্ষ থেকে শিশু কিশোর উৎসব করা হয়।