স্থানীয় সুত্রের খবর, ভাস্কর বাবু একটি দৈনিক সংবাদপত্র ও লোকাল চ্যানেলে কাজ করার সুবাদে খবর সংগ্রহের জন্য সকালে বাইক নিয়ে বাড়ি থেকে বের হয়েছিলেন। তারপর আর ফেরেননি। সন্ধেয় রাউতরি এবং নবগ্রামের মাঠ সংলগ্ন জঙ্গল থেকে তাঁর মৃতদেহ উদ্ধার হয়। ভাস্করের সাথে বিকেল পাঁচটা নাগাদ শেষ কথা বলেছিলো পরিবার। তার পরেই তাকে আর ফোনে পাওয়া যায় নি।
     ভাস্করবাবুর স্ত্রী ঈপ্সিতা ঘোষ সংবাদ মাধ্যম  কে জানান,  বিপক্ষে খবর করা নিয়ে বেশ কিছুদিন থেকেই একজন হুমকি দিচ্ছিল তাঁর স্বামীকে। এই নিয়ে ভাস্কর চরম অস্বস্তিতে ছিল। আতঙ্কে দিন কাটাচ্ছিল। হুমকির কথা সে এক দৈনিক সংবাদপত্রের সাংবাদিককেও জানিয়েছিল। তবে কোন রাজনৈতিক দলের কাছ থেকে প্রাণনাশের হুমকি আসছিল তা তিনি জানেন না।
         এদিকে ঘটনাকে কেন্দ্র করে জেলাজুড়ে ব্যপক চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়েছে। সাংবাদিক মৃত্যুর অন্তরতদন্ত করে দোষীদের গ্রেপ্তার করে শাস্তির দাবি জানিয়েছেন বিশিষ্টরা।