নিজস্ব সংবাদদাতা, টিডিএন বাংলা, মালদা : মালদা জেলা পুলিশ সুপার অর্ণব ঘোষের উদ্যোগে ৩৪ নম্বর জাতীয় সড়কে যাতায়াতকারী যানবাহনের গতির উপর নজরদারি চালাতে বসানো বল তিন-তিনটি ওয়াচ টাওয়ার। স্বভাবতই পুলিশের এই উদ্যোগকে সাধুবাদ জানালেন সাধারণ মানুষ। মালদা জেলার বিভিন্ন সড়কে হামেশায় ঘটে থাকে ছোটবড় দুর্ঘটনা। ঘটে হতাহতের ঘটনাও।

তাই এই সমস্ত দুর্ঘটনায় লাগাম টানতে রাজ্য সরকার চালু করেছে সেফ ড্রাইভ,সেভ লাইফ প্রকল্প। সেই প্রকল্পের অধীনেই মালদা জেলা পুলিশ একাধিক কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে। তেমনই একটি পদক্ষেপ মালদায় ৩৪ নম্বর জাতীয় সড়কের ধার বরাবর একাধিক ওয়াচ টাওয়ার তৈরি। যার মাধ্যমে জাতীয় সড়কে চলাচলকারী বিভিন্ন ছোটবড়ো যানবাহনের গতির উপর নজরদারি চালানো হবে। সুউচ্চ টাওয়ারের শীর্ষে উঠে পুলিশ কর্মী বা সিভিক ভলান্টিয়াররাই মূলত এই নজরদারির কাজ চালাবেন।

কোন যানবাহনের অত্যধিক গতি লক্ষ্য করলেই সেই গাড়ির নম্বর নথিভুক্ত করে সামনে কর্তব্যরত পুলিশ কর্মীদের গোচরে তুলে ধরবেন। এরপর তারাই ওই যানবাহন চালকের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন। ফলে পথ দুর্ঘটনায় রাশ টানা সম্ভবপর হবে। এই প্রসঙ্গে মালদা জেলা পুলিশ সুপার অর্ণব ঘোষ টিডিএন বাংলাকে জানিয়েছেন, রাজ্য সরকারের সেফ ড্রাইভ,সেভ লাইফের অঙ্গ হিসাবেই তারা এই উদ্যোগ নিয়েছেন।

মালদা জেলায় ৩৪ নম্বর জাতীয় সড়কের ধার বরাবর তিনটি ওয়াচ টাওয়ার বসিয়েছেন।দুটি বসানো হয়েছে ইংরেজ বাজার কাটাগড় এবং পাতালচন্ডী এলাকায়।এবং একটি বসানো হয়েছে কালিয়াচকে।সেখান থেকেই অত্যধিক গতিতে চলাচলকারী যানবাহনগুলিকে চিহ্নিত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে। ফলে পথ দুর্ঘটনায় অনেকটাই লাগামটানা সম্ভবপর হবে বলে মনে করছে প্রশাসন।