নিজস্ব প্রতিনিধি, টিডিএন বাংলা, কলকাতা: ঘর ওয়াপসি অব্যাহত তৃণমূল কংগ্রেসের। এর আগে বিধানসভায় ফিরহাদ হাকিম এর হাত ধরে বিজেপি ছেড়ে তৃণমূল কংগ্রেসে যোগদান করেছিলেন ৫ জন কাউন্সিলর। সেই সময় রাজ্যের মন্ত্রী এবং তৃণমূল কংগ্রেস নেতারা দাবি করেছিলেন হালিশহর পৌরসভা দখল করলেন তারা। ছিনিয়ে নিলেন বিজেপির হাত থেকে। হালিশহর এর পর এবার কাঁচরাপাড়া, দল থেকে ছেড়ে যাওয়া কাউন্সিলরদের ফের ফিরিয়ে আনলেন তৃণমূল নেতারা। তৃণমূল ভবনে সাংবাদিক সম্মেলন করে তৃণমূল যুব কংগ্রেসের সভাপতি অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় দাবি করলেন, হালিশহর এর পর এবার কাঁচরাপাড়া পৌরসভাও পুনরুদ্ধার করলেন তারা।

অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, জোর করে আমাদের জনপ্রতিনিধিদের তুলে নিয়ে গিয়ে ভয় দেখিয়ে যোগদান করানো হয়েছিল। একই সঙ্গে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, যারা তৃণমূল কংগ্রেস ছেড়ে গেছে তারা সবাই আমাদের সঙ্গে যোগাযোগ করছেন। তবে কাকে নেওয়া হবে আর কাকে নেওয়া হবে না সে বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেবে দল। যদিও এর আগে তৃণমূল কংগ্রেস জানিয়েছিল, যারা তৃণমূল কংগ্রেস ছেড়ে বিজেপিতে যোগদান করবে তাদের জন্য তৃণমূলের দরজা বন্ধ হয়ে যাবে। তবে এক্ষেত্রে বিবেচনার রাস্তা খোলা রাখলেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়।

কাঁচরাপাড়া পুরসভার ১৭ জন তৃণমূল কংগ্রেস কাউন্সিলর যোগ দিয়েছিলেন বিজেপিতে। তারমধ্যে ৫ জন তৃণমূল কংগ্রেস কাউন্সিলর বিজেপি ছেড়ে আগেই যোগ দিয়েছেন তৃণমূল কংগ্রেসে। শনিবার তৃণমূল কংগ্রেস ভবনের যোগ দিলেন আরও নয় জন কাউন্সিলর। সব মিলিয়ে তৃণমূলের এই মুহূর্তে কাউন্সিলর এর সংখ্যা হল ১৯। অন্যদিকে হালিশহর পৌরসভার একজন কাউন্সিলর এদিন যোগ দিলেন তৃণমূল কংগ্রেসে।

হালিশহর এবং কাঁচরাপাড়া পৌরসভা পুনরুদ্ধারের পর আত্মবিশ্বাসী অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় একের পর এক আক্রমণ করলেন একসময়ের তৃণমূলের সেকেন্ড-ইন-কমান্ড মুকুল রায়কে। মুকুল রায়কে এদিন “মেড ইন চায়না” বলে কটাক্ষ করলেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়।

এদিন সাংবাদিক সম্মেলন করে মুকুল রায় দাবি করেন, কংগ্রেস এবং তৃণমূলের ১০৭ জন বিধায়ক তাদের সঙ্গে যোগাযোগ করছেন. মুকুল রায়ের এই দাবির পরিপ্রেক্ষিতে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় কটাক্ষ করে বলেন, ঘরে নেই নূন ছেলে বলে মিঠুন।