নিজস্ব সংবাদদাতা,টিডিএন বাংলা, কলকাতা: মুসলিম সংগঠনগুলির মধ্যে যে সব দ্বন্দ্ব আছে তা ভুলে সকলকে নিয়ে সাম্প্রদায়িক ও বিভেদকামী শক্তির বিরুদ্ধে পথে নামতে যাচ্ছে মুসলিমরা।বৃহস্পতিবার পার্কসার্কাসের হজ হাউজে রাজ্যের মুসলিম নেতারা সিদ্ধান্ত নেন,দেশের ৯৯শতাংশ হিন্দু সেকুলার, এই হিন্দুদের সাথে করেই আন্দোলন হবে।বিজেপি ও সঙ্ঘ পরিবারের উগ্রতা নিয়ে আলোচনা হয়।

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়ের মুন্ডু কাটার হুমকির বিরোধীতা করা ছাড়াও বরকতির মন্তব্যের বিরোধীতা করা হয়।হিন্দু সমাজের বুদ্ধিজীবীদের কাছে আহ্বান জানানো হয় তাঁরা যেন এই সাম্প্রদায়িক শক্তির বিরুদ্ধে পথে নামেন।এদিন হানাফী,ফরাজী,আহলে হাদিসের নেতারা এক সুরে কথা বলেন।মুহাম্মদ কামরুজ্জামান ছাড়াও,খালিদ ইবাদুল্লা, কাজী গোলাম গাউস,ডঃ নুরুল ইসলাম, শাহ আলম,এটিএম রফিকুল হাসান,আলমগীর হোসেন প্রমুখ বহু মুসলিম বুদ্ধিজীবী উপস্থিত ছিলেন।সকলেই আন্তরিকতার সাথে শান্তি ও সম্প্রীতির জন্য কাজ করার কথা বলেন।খুব শীঘ্রই হিন্দু নেতাদের সাথে নিয়ে সকল মুসলিম সংগঠন বিচ্ছিন্নতাবাদী,বিভেদকামী শক্তির বিরুদ্ধে রাজপথে নামবে বলে জানা গেছে।