এনআরসি,এনপিআর, সিএএ বিরোধী পোষ্টার হাতে স্বরুপ-মৌমিতা

ইব্রাহিম মন্ডল, টিডিএন বাংলা, চাকদাহ: দেশজুড়ে এনআরসি,এনপিআর,সিএএ বিরোধী আন্দোলনের আবহেই এক অভিনব বিবাহানুষ্ঠানের সাক্ষী থাকলো নদীয়ার চাকদহ শহর। বিবাহের আসরে এনআরসি,এনপিআর, সিএএ বিরোধী পোষ্টার নিয়ে আন্দোলনকে সমর্থন করে অনন্য নজির গড়লো নদীয়ার নবদম্পতি ডিওয়াইএফআই’ এর রাজ্য নেতা স্বরুপ মুখাজ্জী ও মৌমিতা। ফ্লেক্সে বড় বড় করে লেখা, মানুষ শব্দটাতে কোনো কাঁটাতারের বেড়া নেই..।

এনআরসি,এনপিআর, সিএএ বিরোধী পোষ্টার হাতে স্বরুপ-মৌমিতা

স্বরুপ রাণাঘাটের নিকটস্থ প্রাচীন জনপদ মুখাজ্জী পরিবারের একমাত্র পুত্র। জমিদার বাড়ির ছেলে হয়েও বাম রাজনীতির সাথে ঘনিষ্টতা ছাত্রাবস্থা থেকেই। চাকদহের মৌমিতার সাথে প্রত্যক্ষ রাজনীতির যোগ না থাকলেও স্বরুপের ইচ্ছাকে সম্মান জানিয়ে, সে এই অভিনব ও যন্ত্রহীন বিবাহানুষ্ঠানে সানন্দেই সম্মতি জানিয়েছে। তার কথায়, ‘দেশের মানুষ যখন বিপন্ন, তখন শুধু দুজনের সুখী গৃহকোণ নিয়ে ভাবার কোনো অর্থই হয়না।” তারা দুজনেই রেজিস্ট্রেশন পত্রে নিজেদের ধর্ম পরিচয়ের স্থানে দিয়েছে ‘মানবতা’। কনে পক্ষের বাড়ির সাথে সাথে স্বরুপের বাড়িতে বধূ পরিচয়ের অনুষ্ঠানে বাজবে সম্প্রীতির গান, বৃক্ষদান, রক্তদান এবং দুঃস্থদের আপ্যায়নের আয়োজন থাকবে বলে জানা গেছে। প্রচলিত বৈদিক মন্ত্রের জায়গায় উচ্চারিত হবে জীবনের জয় গান।

উল্লেখ্য এর আগেও কেরালায় বিবাহের অনুষ্ঠানেই এনআরসি,এনপিআর,সিএএ বিরোধী আন্দোলন লক্ষ্য করা গেছে,সেই সাথে রাজ্যে বিয়ের পিড়িতেই এসএফআই রাজ্য কমিটির সদস্য অন্তরা ঘোষের হাতে এনআরসি, এনপিআর, সিএএ বিরোধী পোষ্টার লক্ষ্য করা গেছে, নাে সিএএ, নাে এনআরসি ‘। বিয়ের কার্ডের মাধ্যমেই এক নতুন ধরনের প্রতিবাদ করেছিলেন মহম্মদ আলিফ ।