টিডিএন বাংলা ডেস্ক: রাজ্যজুড়ে এনআরসি আতঙ্ক অব্যাহত। দিনাজপুর- বসিরহাটে রেশন লাইনে দাঁড়িয়ে মৃত্যু হলো দুই ব্যক্তির। মৃতদের নাম মন্টু সরকার(৫২),

মমেনা বেওয়া। ডিজিটাল রেশন কার্ডে নাম তুলতে গিয়ে প্রবল গরমে অসুস্থ হয়েই লাইনে দাঁড়িয়ে মৃত্যু হয়েছে বলে অভিযোগ।

জানা গেছে, এদিন এনআরসি আতঙ্কে মন্টু নামে ওই ব্যক্তি দিনাজপুরে রেশন কার্ড সংশোধনের জন্য ব্লক অফিসে গিয়েছিলেন। প্রচন্ড রোদের ফলে হঠাতই অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে বালুরঘাট জেলা হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে সেখানেই মৃত্যু হয় তার।এদিকে এই মৃত্যু নিয়ে রাজ্য রাজনীতি কার্যত তোলপাড় হয়ে উঠে। উত্তরবঙ্গ উন্নয়ন প্রতিমন্ত্রী বাচ্চু হাসদা নিজে এই ঘটনাকে এনআরসি আতঙ্কে মৃত্যু বলে অভিহিত করেন। মৃতের পরিবারকে ২ লক্ষ টাকা ক্ষতিপূরনের ঘোষণাও করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

অপরদিকে একই দিনে বসিরহাটের হিঙ্গলগঞ্জের বরুণহাট কাটাখালি গ্রামে এনআরসি আতঙ্ক সৃষ্টি হতেই ভয়ে জমির দলিলের জন্য ছুটোছুটি করতে শুরু করেন বৃদ্ধা মোমেনা বেওয়া। কিন্তু দলিলে সমস্যা থাকায় চিন্তিত হয়ে পড়ে অসুস্থ হলে তাকে স্থানীয় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।সেখানেই তাঁর মৃত্যু হয়। এনআরসি আতংকেই ওই বৃদ্ধার মৃত্যু হয়েছে বলে দাবি পরিবারের।