নিজস্ব প্রতিনিধি, টিডিএন বাংলা, ফারাক্কা : আধুনিক প্রযুক্তির ছোঁয়া বদলে দিতে পারে বটতলার ভাগ্য। আর নয় চক-ডাস্টার, নূর জাহানারা স্মৃতি হাই মাদ্রাসায় এবার থেকে চালু হল ‘স্মার্ট ক্লাস রুম’। ২১ শে ফেব্রুয়ারি আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালনের মধ্যে দিয়ে মুর্শিদাবাদের ফারাক্কার ঐ মাদ্রাসায় স্মার্ট ক্লাস রুম উদ্বোধন করলেন ফারাক্কা থানার আইসি উদয় শঙ্কর ঘোষ।

ফারাক্কার প্রত্যন্ত গঙ্গা ভাঙন প্রবণ এলাকা মহেশপুর। এখানকার বেশিরভাগ পরিবারই বিড়ি শ্রমিক, শিশু শ্রম, হকারীর সাথে যুক্ত। কেউ বা প্রাথমিকের গন্ডি কাটিয়ে সোজা পাড়ি দেয় ভিন রাজ্যে। মাঝপথে স্কুলছুট সেই সব পড়ুয়া ছাড়াও মদ, জুয়া, লটারী ও অন্যান্য নেশাগ্রস্থ সন্তানদের জীবনকে নাটকীয় ভাবে পাল্টে দিয়েছে এই মাদ্রাসা। এমনটাই মত এলাকাবাসীদের।

এদিন স্মার্ট বোর্ডে ভাষা দিবসের বিভিন্ন তথ্য চিত্র দেখে মুগ্ধ পড়ুয়া ও অভিভাবকেরা। আর এই প্রযুক্তির মাধ্যমেই আগামী দিনের পথের দিশা দেখতে পাচ্ছে তামাম মহেশপুর। আর চক ডাস্টার নয়, এখন খুব কম সময়ের মধ্যেই ডিজিটাল বোর্ডে মাউস ক্লিক করে চলবে ক্লাস। ভাষাদিবসের দিন এরকমই দুটি ক্লাসরুম চালু হল মাদ্রাসায়। প্রতি রুমে বসতে পারবে একশো জন পড়ুয়া। আর এই অভিনব শ্রেণীকক্ষ পেয়ে উৎসাহী পড়ুয়ারাও।

অভিভাবক সেলিনা বিবির কথায়, এখানকার বিপদগামী সমাজ ব্যবস্থার পরিবর্তন এত কম সময়ে এবং এত ব্যাপক হারে হয়েছে যে তা সায়েন্স ফিকশন গল্পের মতই মনে হয়। শিক্ষকদের যথাযথ প্রচেষ্টার ফলে তামাম মহেশপুরবাসী এখন মাদ্রাসার ছায়াতলে। এই প্রতিষ্ঠানটিতে তেরো থেকে বেড়ে বর্তমানে সাত’শ পড়ুয়া। যাদের বেশিরভাগই ছিল স্কুল ছুট। এদিন উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আইসি বলেন, শিক্ষার মান উন্নয়নে এই মাদ্রাসা অভিনব ভাবনায় শিক্ষাকে আরও আকর্ষণীয় করে তুলছে যা অবশ্যই সাধুবাদ ও প্রশংসা পাওয়ার যোগ্য।

প্রধান শিক্ষক জানে আলম জানান, পিছিয়ে পড়া এই এলাকায় মাদ্রাসার প্রতি ছাত্রছাত্রীদের আকর্ষণ বাড়াতে ডিজিটাল ক্লাস পড়ুয়াদের উপভোগ্য হবে এই কথা ভেবে পশ্চিমবঙ্গ মাদ্রাসা শিক্ষা অধিকর্তা আবিদ হুসেন সাহেবের সাথে কথা বলি। তাঁর আন্তরিকতায় মাদ্রাসার জন্য নানা অনুদানের মধ্যে অন্যতম হল আজকের এই স্মার্ট ক্লাস।

স্মার্ট ক্লাসের মাধ্যমে মহেশপুরের প্রথম প্রজন্মের পড়ুয়াদের পঠন পাঠনকে আরও সহজ ও আকর্ষণীয় করে তোলা সম্ভব হবে বলে মনে করছেন মাদ্রাসার শিক্ষক শিক্ষিকারা। ইংরেজি শিক্ষক মহ পারভেজ এই উদ্যোগকে সাধুবাদ জানিয়েছেন। তাঁর মতে স্মার্ট ক্লাস রুমে ছাত্রছাত্রীদের সঙ্গে বিষয় নিয়ে কথা বলার সময় অনেক বাড়বে। ফলে ক্লাস রুমকে আরও আকর্ষণীয় এবং আনন্দদায়ক করে তোলা সম্ভব হবে।

এদিন ভাষা শহীদদের কথা স্মরণ করে ভাষা কি, মাতৃভাষার প্রয়োজনীয়তা ও ভাষা দিবসের ইতিহাস সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা
করেন প্রধান শিক্ষক জানে আলম। পাশাপাশি জম্মু কাশ্মীরে শহীদ জওয়ানদের জন্য শোক প্রকাশ ও তাঁদের আত্মার শান্তি কামনা করেন। পরিশেষে, তিনি ছাত্র ছাত্রীদের কথা বলার সময় মার্জিত, সংযত  ও বিনয়ী হবার উপদেশ দেন। এদিনের অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন মাদ্রাদা সভাপতি শাজাহান আলী, আবুল হাসনাত, নূর মহম্মদ বিশ্বাস মহাবিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ অনুপ কুমার মন্ডল প্রমুখ।