নিজস্ব প্রতিনিধি, টিডিএন বাংলা, কলকাতা: আমাদের ঘর গোছানো রয়েছে। নতুন করে ঘর গোছানোর কিছু নেই। দল আমাকে দায়িত্ব দিয়েছে, আমি সেই মতো প্রস্তুত রয়েছি। কলকাতা পুরসভার নির্বাচন প্রসঙ্গে এই মন্তব্য করলেন কলকাতা পুরসভার মেয়র তথা রাজ্যের মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম। শনিবার তৃণমূল কংগ্রেস ভবনে এক সাংবাদিক সম্মেলনে এই দাবি করেন তিনি। প্রসঙ্গত তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগদান করেছেন তৃণমূল কংগ্রেসের হেভিওয়েট নেতা শোভন চট্টোপাধ্যায়। শোভন চট্টোপাধ্যায়ের বিজেপিতে যোগ দেওয়ার পর থেকেই প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে, তাহলে কি কলকাতা পুরসভা নিজেদের দখলে নিতে বড়োসড়ো পরিকল্পনা সাজাচ্ছে বিজেপি ? যদিও ফিরহাদ হাকিমের এদিনের মন্তব্য বর্তমান রাজনৈতিক পরিস্থিতিতে অত্যন্ত তাৎপর্যপূর্ণ বলে মনে করছে রাজনৈতিক মহল।

একই সঙ্গে শনিবার একদিকে নৈহাটি পৌরসভা এবং অন্যদিকে গারুলিয়া পৌরসভার বিজেপিতে চলে যাওয়া তৃণমূল কাউন্সিলররা ফিরে এলেন তৃণমূল কংগ্রেসে। নৈহাটি পুরসভার ১৫ জন তৃণমূল কাউন্সিলর তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগদান করেছিলেন. শনিবার তাদের মধ্য থেকে ১০ জনকে নতুন করে তৃণমূল কংগ্রেসে যোগদান করালেন রাজ্যের মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম। একইসঙ্গে গারুলিয়া পৌরসভার ২ জন তৃণমূল কাউন্সিলর যারা বিজেপিতে চলে গিয়েছিলেন তারা ফের ফিরে এলেন তৃণমূল কংগ্রেসে।

বিজেপি ছেড়ে তৃণমূল কংগ্রেসের ফিরে আসা প্রসঙ্গে ফিরহাদ হাকিম জানিয়েছেন, তৃণমূল কংগ্রেসের সংস্কৃতি আর বিজেপির সংস্কৃতি এক নয়। যারা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের হয়ে কাজ করেছে, মানুষের পাশে থেকে কাজ করেছে, তারা বিজেপিতে গিয়ে কাজ করতে পারবে না। একইসঙ্গে কটাক্ষ করে ফিরহাদ হাকিম বলেন, বিজেপিতে গুটখার গন্ধ তাই বাধ্য হয়ে তৃণমূল কংগ্রেসে ফিরে আসছেন বিজেপিতে যোগ দেওয়া কাউন্সিলররা।

এদিনের সাংবাদিক সম্মেলনে তাৎপর্যপূর্ণভাবে ফিরহাদ হাকিম বলেন, যারা নতুন বিজেপিতে যোগ দিচ্ছে তারাও তৃণমূল কংগ্রেসে ফিরে আসবে। নাম না করলেও সেই ইঙ্গিত যে শোভন চট্টোপাধ্যায়ের দিকে ছিল সে কথা বলার অপেক্ষা রাখে না।