টিডিএন বাংলা ডেস্ক: আম্ফানের মারণ থাবায়  বিধ্বস্ত কলকাতা সহ রাজ্যের একাধিক জেলা। মৃত্যু হয়েছে ৭২ জন মানুষের। গাছপালা, ঘরবাড়ি ভেঙে চুরমার। চাষের জমির ব্যপক ক্ষয়ক্ষতি। ঘূর্ণিঝড় বিধ্বস্ত এলাকা পরিদর্শনে রাজ্যে এলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। আজ ১১ টার সময় কলকাতা বিমানবন্দরে অবতরণ করেন প্রধানমন্ত্রী।

আজ আকাশপথে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে ঘূর্ণিঝড় বিধ্বস্ত এলাকা পরিদর্শনে মোদি। বিমানবন্দরে প্রধানমন্ত্রীকে স্বাগত জানান মুখ্যমন্ত্রী। উপস্থিত ছিলেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড়। প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে রাজ্য সফরে এসেছেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়, দেবশ্রী চৌধুরী, ধর্মেন্দ্র প্রধান ও প্রতাপচন্দ্র সারেঙ্গি।

মুখ্যমন্ত্রী জানান, হেলিকপ্টারে করে রাজারহাট, ভাঙড়, গোসাবা, সন্দেশখালি, হিঙ্গলগঞ্জ হয়ে তাঁরা যাবেন বসিরহাটে। সেখানে রাজ্য প্রশাসনের পদস্থ আধিকারিকদের সঙ্গে ঝড়ে ক্ষয়ক্ষতি নিয়ে মূল্যায়ন-বৈঠক করবেন মোদি ও মমতা। রাজ্যের তরফে ক্ষয়ক্ষতি সম্পর্কিত একটি রিপোর্ট প্রধানমন্ত্রীর হাতে তুলে দেওয়া হবে। বসিরহাটে বৈঠক সেরে এরপর ওড়িশায় উমপুন-বিধ্বস্ত এলাকা পরিদর্শনে যাওয়ার কথা প্রধানমন্ত্রীর।