ঈদ-রোজা নিয়ে বাংলার বিশিষ্ট তথ্যচিত্র নির্মাতা সৌমিত্র ঘোষ দস্তিদারের সাথে কথা বললেন আমাদের প্রতিনিধি

টিডিএন বাংলা: রোজা সম্পর্কে আপনার কী ধারণা?

সৌমিত্র দস্তিদার: সত্যি বলতে কিছু বছর আগে পর্যন্ত আমি কিছু জানতাম না। পাশাপাশি বাস করলেও কেউ কাউকে চিনিনা ভাবলে অবাক লাগে। তবে এখন রোজা সম্পর্কে কিছুটা জানি। রোজা হচ্ছে মুসলিমদের পালনীয় কাজ। ভোর রাতে খেয়ে সন্ধ্যায় খেতে হয়। এ মাসে নিজেকে সব সময় পবিত্র রাখতে হয়, সব সময় পুন্যঅর্জন করে মুসলিমরা। বাকি ১১ মাস সৎ জীবনযাপন করার ট্রেনিং এই এক মাস।

টিডিএন বাংলা: রোজা নিয়ে আপনার জীবনের অভিজ্ঞতা বলবেন?

সৌমিত্র: একটা সময় পার্কসার্কাসের কাছে থাকতাম। ছোটবেলায় তাই ঈদ শব্দটা জানতাম। ঈদের দিন নামাজের পর মুসলিম সম্প্রদায়ের লোকজন সেজে গুজে পরস্পর কোলাকুলি করতেন। বেশ একটা খুশি খুশি ভাব চারদিকে, এটা এখনও মনে আছে। কিন্তু সত্যি বলতে কী রমজান, ইফতার, চাঁদ রাত এসব এই কয়েকবছর আগেও জানতাম না। আশির দশকে ইমরান ,আমিরুল, আলাউদ্দিন এরকম কয়েকজন বন্ধু হয়। তখন ঈদ নিয়ে আর একটু আগ্রহ বাড়ল। ওইটুকুই।আমার কাছে তখনও ঈদ মানে বন্ধুদের বাড়িতে গিয়ে খাওয়া দাওয়া।’


টিডিএন বাংলা: মুসলিমদের সাথে যোগাযোগ বাড়লো কখন?

সৌমিত্র: কেউ কেউ হয়তো জানেন ছ’সাত বছর আগে আমি একটি তথ্য চিত্র বানাই-মুসলমানের কথা । বস্তুত ওই ছবির দৌলতেই প্রথম খুব কাছ থেকে মুসলিম যাপনের হালহকিকত জানার চেষ্টা ।আমার এখন খুব অপরাধ বোধ কাজ করে যে মাত্র কয়েক বছর আগেও আমার দীর্ঘ দিনের পড়শির আনন্দ,দুঃখ,উৎসব নিয়ে অন্য সব বাবু ভদ্দরলোকের মতো আমারও কোন আগ্রহ ছিল না। আসলে পাশাপাশি থাকলেও আমরাতো কেউ কাউকে চিনি না। বলা ভালো চিনতে চাই না। মিশতে মিশতে আমি এখন অন্তত মনে মনে আমার রাজ্যের সাতাশ শতাংশেরই একজন। তাদের আনন্দ উৎসবের শরিক।’

টিডিএন বাংলা: রোজার দিন এখন কী করেন?

সৌমিত্র: রমজানের একমাস মুসলিমদের যে কৃচ্ছসাধন তা মানব সভ্যতার ইতিহাসে এক অনন্য দৃষ্টান্ত। আমার সবচেয়ে প্রিয় চাঁদ রাত। আমি সময় সুযোগ পেলেই মুসলিম এলাকায় ঘুরে বেড়াই। মেলা বসে । হাসি মুখে বাচ্চারা পাঁপড় ভাজা খায়।ঈদের সকাল ঝলমল করে। সবার গায়ে নতুন পোশাক। আমিও সামিল হই উৎসবে। প্রতি বছর ।