টিডিএন বাংলা ডেস্ক: কোনো স্কুলে না পড়েও মাত্র ১১ বছর বয়সে মাধ্যমিক পাশ করে রাজ্যের ইতিহাসে এক অনন্য নজীর গড়লেন সইফা খাতুন। হাওড়ার আমতার মেয়ে সইফাই এখন রাজ্যের সবথেকে কম বয়সে মাধ্যমিক পাশ করলেন।

উল্লেখ্য, সইফা কোনো স্কুলে না পড়লেও মাত্র ছয় বছর বয়সে মাধ্যমিকের সমস্ত সিলেবাস পড়ে সম্পন্ন করেন। কিন্তু বোর্ডের অনুমতি না থাকায় পরীক্ষায় বসতে পারেনি সে। তারপর ১১ বছর বয়সে মাধ্যমিকে বসার জন্য মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দ্বারস্থ হন বিরল প্রতিভার অধিকারী এই মেয়ে। তারপরেই তাকে মাধ্যমিকে বসার ছাড়পত্র দেওয়া হয় পর্ষদের পক্ষ থেকে। মাধ্যমিকে পাস করলেও মন মতো ফল না হওয়ায় স্ক্রুটিনি করবেন বলেও জানা গেছে।

জানা গেছে, হাওড়ার আমতার এই মেয়ে ছোট থেকেই বিরল প্রতিভার অধিকারী। দুই বছর যখন বয়স থেকেই কাগজের অনুবাদের কাজও করত সে। বাবার মতো ডাক্তার হওয়ার স্বপ্ন নিয়েই এগিয়ে যাচ্ছেন সইফা।