নিজস্ব সংবাদদাতা, টিডিএন বাংলা, মুর্শিদাবাদ: “সুসংহত দেশ গঠনের অঙ্গীকার, চাই পূর্ন অধিকার” শীর্ষক শিরোনাম দিয়ে প্রথম মুর্শিদাবাদ জেলা সম্মেলন করলো ছাত্র সংগঠন এসআইও। মুর্শিদাবাদ জেলায় বিশ্ববিদ্যালয়ের দাবি, আলীগড় মুসলিম বিশ্ববিদ্যালয়ের বাস্তবায়ন ও বেকারত্ব দূরীকরণের দাবি নিয়ে রবিবার ও সোমবার দুদিনের এই সম্মেলনে ছাত্রদের ভিড় ছিল চোখে পড়ার মতো। সম্মেলনে বক্তব্য পেশ করেন এসআইওর সর্বভারতীয় সভাপতি লাবিদ সাফি, পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের সভাপতি ওসমান গনি, জামায়াতে ইসলামী হিন্দের রাজ্য সভাপতি মাওলানা আব্দুর রফিক, সম্পাদক মসিউর রহমান, আলিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. আয়াতুল্লাহ ফারুক, এসআইও মুর্শিদাবাদ জেলা সভাপতি মোহাম্মদ আব্দুল কারিম, প্রাক্তন রাজ্য সম্পাদক ইমাম হোসেন, আব্দুল্লাহিল কাফি, নাবিক পত্রিকার সম্পাদক আমিনুল ইসলাম, অধ্যাপক কৌশিক চট্টোপাধ্যায়, তথ্য চিত্র নির্মাতা সৌমিত্র ঘোষ দস্তিদার সহ অন্যান্য বিশিষ্ট জনেরা।

রবিবার সকাল থেকেই শুরু হয়ে সোমবার পর্যন্ত চলে সম্মেলন। বক্তব্য পেশ করেন আগত অতিথিবৃন্দ। বক্তাদের মুখ থেকে একে একে উঠে আসে মুর্শিদাবাদ জেলার বঞ্চনার চিত্র। শিক্ষা আন্দোলনের মাধ্যমে বিশ্ববিদ্যালয় ছিনিয়ে নেওয়া হলেও পরবর্তী সময়ে তার বাস্তবায়ন নিয়ে গড়িমসির বিরুদ্ধে এদিন তীব্র ক্ষোভ প্রকাশ করেন সকলেই। রাজ্য তথা দেশজুড়ে বেকারত্বের বিরুদ্ধেও সরব হন বক্তারা। দেশজুড়ে গণপিটুনি থেকে শুরু করে এনআরসি সার্বিক বিষয় নিয়ে যেভাবে মানুষকে ভীত সন্ত্রস্ত করা হচ্ছে তার তীব্র নিন্দা করে নাগরিকদের অধিকার সুনিশ্চিৎকরনের দাবি জানানো হয় সম্মেলন থেকে। রবিবার সন্ধ্যা নাগাদ এসআইও পশ্চিমবঙ্গ জোনের ক্যালেন্ডার, জেলা সম্মেলনের স্মরণিকা ও প্রতিষ্ঠা লগ্ন থেকে জেলার সমস্ত জেলা সভাপতিদের সংবর্ধনা প্রদান করা হয়। সোমবার সম্মেলন শেষে বিশ্ববিদ্যালয় সহ একাধিক ইস্যু নিয়ে মিছিল করে ছাত্রছাত্রীরা। মিছিলে পা মেলান স্বয়ং এসআইও’র কেন্দ্রীয় সভাপতি লাবিদ সাফি। ডাকবাংলা রাইজিং সান কনভেন্ট স্কুল গ্রাউন্ডে জনসভাও অনুষ্ঠিত হয়।

সম্মেলন ও জনসভায় তামাদ্দুন শিল্পীগোষ্ঠীর অনবদ্য উপস্থাপনা ছাত্র সমাজকে উদ্বুদ্ধ করে তোলে। নানান রকম ইসলামী সঙ্গীত ও নাটিকা পরিবেশিত হয়। সম্মেলন থেকেই সুসংহত দেশ গঠনের জন্য ছাত্র সমাজকে এগিয়ে আসার আহবান জানান এসআইও নেতৃবৃন্দ।