নিজস্ব সংবাদদাতা, টিডিএন বাংলা, দক্ষিণ ২৪পরগনা: দক্ষিণ ২৪ পরগণা এপিডিআর জেলা কমিটির উদ্যোগে এবং “কোয়ারেন্টিন স্টুডেন্ট ইউথ নেটওয়ার্ক”-এর সহযোগিতায় দক্ষিণ ২৪পরগনা জেলার ডায়মন্ড হারবারের ভোগপুঞ্জ গ্রামে দুঃস্থ অসহায় শ্রমজীবী সাধারণ মানুষদের জন্য শুরু হল যৌথ রান্নাঘর।
করোনা মোকাবিলায় প্রথমে হয় ‘জনতার কারফিউ’ তারপর প্রায় দুই মাসের অধিক লকডাউন। শ্রমিক শ্রেণীর দিন আনা-দিন খাওয়া মানুষ দিশেহারা। খাদ্য নিরাপত্তা হীনতায় ভুগতে থাকার মাঝেই ঘনিয়ে এল আর এক প্রাকৃতিক দুর্যোগ-ঘূর্ণিঝড় আমফান। পর পর প্রাকৃতিক বিপর্যয়ে নাস্তানাবুদ শ্রমজীবী-সাধারণ মানুষের মধ্যে খাদ্যের অভাব পূরণের তাগিদেই যৌথ রান্নাঘরের আয়োজন করেন এপিডিআর নেতৃত্ব। পুরুষদের পাশাপাশি পাড়ার মহিলারা হাতে হাতে এগিয়ে আসেন। এপিডিআর সহ-সভাপতি আলতাফ হোসেন টিডিএন বাংলাকে জানান, “প্রায় পাঁচশ লোকের আয়োজন কিন্তু প্রথম দিন হওয়ায় সাড়ে তিনশ লোক আজকে খাওয়া-দাওয়া করেছে। এখানে সমস্ত ভিন্ন ধর্মের এবং বর্ণের মানুষরা এই যৌথ রান্নাঘরে একসঙ্গে পাশাপাশি খাওয়া দাওয়া করেছে। আগামী ১০ দিনের মতোই এই যৌথ রান্নাঘর চলবে তারপরে এলাকার মানুষের সহায়তা নিয়ে আরো কিছুদিন চালানোর চেষ্টা করা হবে । ইলেকট্রিকের অসুবিধার কারণে আমরা এক বেলাই রান্না করবো।”
এপিডিআর দক্ষিণ ২৪পরগনা শাখা ঘূর্ণিঝড় পরবর্তী দুর্যোগ কালীন সময়েও মেডিকেল টিম এবং ত্রাণ নিয়ে মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছে। তবে আজ এক নতুন ভাবে নতুন পথের যাত্রা শুরু করলো।