নিজস্ব সংবাদদাতা, টিডিএন বাংলা, মালদা: অসহ্য শারীরিক যন্ত্রণা সহ্য না করতে পেরে হাসপাতালের ভিতরেই আত্মহত্যা করল এক যুবক। ঘটনায় রীতিমতো চাঞ্চল্য ছড়ালো মালদা মেডিক্যাল কলেজ এন্ড হাসপাতালে। হাসপাতালে নিরাপত্তা নিয়েও প্রশ্ন তুলেছেন রোগীর পরিজনেরা।

জানা গিয়েছে, মৃতের নাম মনোজিৎ দাস। পেটের ব্যাথা নিয়ে চারদিন হাসপাতালে ছিলেন তিনি। গত চারদিন আগে অসহ্য ব্যাথা নিয়ে বালুরঘাট হাসপাতালে ভর্তি হয়। সেখান থেকে রবিবার মালদা মেডিক্যালে ভর্তি করে। সোমবার তার স্ত্রী রাত্রিবেলা মেডিক্যালের বাইরে আসে। সেই সময় রাত্রিবেলা হাসপাতালের বাথরুমে গামছা দিয়ে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করে ওই যুবক। পুলিশ মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তে পাঠায়। মৃত্যুর প্রকৃত কারন নিয়ে রহস্য দানা বাঁধতে শুরু করেছে। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।