টিডিএন বাংলা ডেস্ক: নির্বাচন কমিশন বাংলায় শান্তিপূর্ণ ভোট হয়েছে বলে দাবি করে। কিন্তু বিরোধীরা অন্য কথা বলছে। মোট ৩০টি বুথে পুনর্নির্বাচনের দাবি তুলল বামেরা। এর মধ্যে রায়গঞ্জের ২২টি বুথ ও ইসলামপুরের ৪টি বুথ রয়েছে। দ্বিতীয় দফা ভোটগ্রহণ মেটার পরই গণ্ডগোলের অভিযোগে পুনর্নির্বাচনের দাবিতে সরব হলেন সিপিএম-এর রাজ্য সম্পাদক সূর্যকান্ত মিশ্র।

এদিন ভোট শেষের পর সূর্যকান্ত মিশ্র অভিযোগ করেন, স্পর্শকাতর বুথের তালিকা ঠিক মতো হয়নি। রায়গঞ্জের ২২টি বুথে পোলিং এজেন্ট ও ভোটাররা ঢুকতে পারেননি। প্রার্থীরা মার খেয়েছেন। প্রসঙ্গত ইসলামপুরের নয়াপাড়া টেরিংবাড়িতে আক্রান্ত হন বাম প্রার্থী মহম্মদ সেলিম। তাঁর গাড়িতে ভাঙচুর করা হয়। এহেন পরিস্থিতিতে ভোটারদের নিরাপত্তা কোথায় প্রশ্ন তোলেন তিনি। এরপরই রায়গঞ্জের ২২টি ও ইসলামপুরের ৮টি, মোট ৩০টি বুথে পুনর্নির্বাচনের দাবি করেন সূর্যকান্ত বাবু।

পাশাপাশি, মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে নিয়ে বায়োপিক ‘বাঘিনী’র মুক্তি কেন রদ করা হবে না, সে প্রশ্নও তুলেছেন তিনি।