টিডিএন বাংলা ডেস্ক: অনশনরত মাদ্রাসার হবু শিক্ষকদের উপর মিলিতভাবে হামলা চালালো তৃণমূলী দুষ্কৃতীরা । মমতা ব্যানার্জির সরকারের মুখোশ আরেকবার উন্মোচিত হলো। শুক্রবার ভোররাতে পুলিশ ও তৃণমূলী দুষ্কৃতকারীদের হামলায় আহত হয়েছেন বেশ কয়েকজন অনশনরত মাদ্রাসার হবু শিক্ষক। হাসপাতালেও ভর্তি করতে হয়েছে।

রাজ্য সরকার অনুমোদিত মাদ্রাসাগুলিতে অবিলম্বে  শিক্ষক নিয়োগের দাবিতে গত ২৭ মার্চ থেকে  কলকাতা প্রেস ক্লাবের সামনে  অনশন আন্দোলন শুরু করেছিলেন মাদ্রাসা সার্ভিস কমিশনের প্যনেলে নাম থাকা ১৩০ জন হবু শিক্ষক।  এদিন সকাল সাড়ে পাঁচটা নাগাদ প্রথমে পুলিশ এসে হুমকি দেয়। পরক্ষণেই জনা পঞ্চাশ তৃণমূলী দুস্কৃতী এসে অনশনকারীদের উপর হামলা চালায়। পুলিশ ঝামেলা ঠেকানোর পরিবর্তে এই ঘটনার যাতে ভিডিও না হয় সেই দিকেই নজর দেয়।

অনশনকারীদের মধ্যে মনোজ,মিজান, মনিরুল, এই তিনজনকে পুলিশ গ্রেপ্তার করে ময়দান থানায় নিয়ে যায়। পুলিশের মারে আহত মনিরুলকে এস এস কে এম হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। বাকি অনশনকারীদের পুলিশ লাঠিচার্জ করে সেখান থেকে হটিয়ে দেয়। সেখান থকে অনশনকারীরা শহীদ মিনার ময়দানে আশ্রয় নেয়। সেখানেও দলদাস পুলিশ এসে তাড়া দেয় অনশনকারীদের।  তাঁরা সেখান থেকে টিপু সুলতান মসজিদে আশ্রয় নেয়।  টিপু সুলতান মসজিদ ঘিরে রেখেছে পুলিশ। খবর গণশক্তির।

এদিকে মাদ্রাসার হবু শিক্ষকদের উপর হামলার ঘটনার তীব্র নিন্দা জানিয়েছে বিভিন্ন সংগঠন। সোস্যাল মিডিয়াতেও প্রতিবাদের ঝড় উঠেছে। এদিকে মানবাধিকার সংগঠন এপিডিআর আন্দোলনকারীদের পাশে দাঁড়িয়ে আন্দোলন চালানোর কথা জানিয়েছে।