নিজস্ব প্রতিনিধি, টিডিএন বাংলা, বীরভূম : ফের জালিয়াতের খপ্পরে পরিবার। একাউন্টের তথ্য দিয়ে সর্বস্বান্ত হলেন তারা। ঘটনাটি ঘটেছে বীরভূমের দুবরাজপুর থানার বক্রেশ্বরে। পরিবারের পক্ষ থেকে অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে, ঘটনার তদন্তে পুলিশ।

বীরভূমের দুবরাজপুর থানার বক্রেশ্বরের বাসিন্দা কুন্তল রুজ। দাবী শুক্রবার সকালে এক ব্যক্তি তাকে ব্যাংক ম্যানেজারের পরিচয় দিয়ে ফোন করে। প্রথমে কুন্তল বাবু বিষয়টিকে পাত্তা না দিলেও। দ্বিতীয় বার ফোন এলে কুন্তল বাবু ভাবেন যে সত্যিই তাকে ব্যাংক থেকে ফোন করা হয়েছে। এরপরই ওই ব্যক্তি কুন্তল বাবু তার ফোনে ম্যাসেজের দ্বারা আসা ওটিপি নম্বর জানতে চাইলে তিনি বলেও দেন।

এরপরই ওই ব্যক্তি ফোন কেটে দেয়। কিন্তু ফোন কাটার পর তিনি দেখেন তার এবং তার স্ত্রী ব্যংক একাউন্ট থেকে মোট ৮২হাজার টাকা খোয়া গেছে। এরপরই তিনি দুবারাজপুর থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন এবং ওই রাষ্ট্রায়ত্ব ব্যাঙ্কের বক্রেস্বরের শাখায় লিখিতভাবে জানান।

এই বিষয়ে কুন্তল বাবু বলেন,”আমাকে কাছে ব্যাংক ম্যানেজারের পরিচয় দিয়ে এক ব্যক্তি ফোন করে। প্রথমে যদিও আমি ব্যাপারটি পাত্তা দিই নি কিন্তু এবার একবার ফোন করতে আমি ভাবলাম সত্যি ব্যাংক ম্যানেজার।এরপর আমাকে বললো আপনার নম্বরে একটি এসএমএস যাবে তাতে একটি নম্বর থাকবে ওটা আমাকে বলবেন। আমি কথা মত এসএমএস এ আসা নম্বরটি বলে দিই। তারপর দেখি আমার এবং আমার স্ত্রীর একাউন্ট থেকে মোট ৮২ হাজার টাকা চুরি গেছে। এরপরই আমি দুবরাজপুর থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করি এবং ব্যাংকেও লিখিতভাবে জানাই।”

প্রসঙ্গত,বার বার এই রকম ভাবে ব্যাংক জালিয়াতির শিকার হতে হচ্ছে সাধারণ মানুষদের। যদিও প্রশাসনের পক্ষ থেকে বিভিন্ন বিজ্ঞাপনের মাধ্যমে এই সমস্ত জালিয়াতি থেকে সতর্ক থাকার জন্য অনুরোধ করা হচ্ছে তবুও জালিয়াতির শিকার হতে হলে পৌঢ় দম্পতিকে।

Advertisement
mamunschool