নিজস্ব সংবাদদাতা, টিডিএন বাংলা, কলকাতা: আয়েশা নূর। কলকাতার বস্তির মেয়ে। নারী আন্দোলনের কর্মী।

আর্থিক অনটনের মধ্যেই দেশের জন্য সোনা ছিনিয়ে আনেন তিনি। তিনবারের বিশ্ব সোনাজয়ী এই ক্যারাটে কন্যা আন্তর্জাতিক খ্যাতি অর্জন করলেও বাংলার সরকারের থেকে আজও কোন সম্মান পাননি বলে অভিযোগ।

আরও পড়ুন বিদেশে ফের খেলার সুযোগ পেয়েও টাকার অভাবে যাওয়া হবেনা বিশ্ব সোনাজয়ী দরিদ্র আয়েশা নূরের

২০১৭ সালে আমেরিকা দূতাবাসের পক্ষ থেকে আয়েশা নূরকে সম্মানিত করা হয়। ২০১৯ সালে টাইমস অফ ইন্ডিয়া সেরা নারীর পুরস্কার দেয়। প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী মানেকা গান্ধী আয়েশার কাজকে কুর্নিশ জানান। কলকাতার দরিদ্র ঘরের এই কন্যার সাফল্যের খবর বারবার এদেশের সব জনপ্রিয় মিডিয়ায় এসেছে। কিন্তু আয়েশার পরিবারের আক্ষেপ, বারবার চিঠি দিয়েও মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কোনও জবাব দেননি বা দেখা করার সুযোগ দেননি।

দিল্লির নির্ভয়া কাণ্ডের পর আয়েশা নূর সিদ্ধান্ত নেন তিনি এক লক্ষ মেয়েকে ফ্রিতে ক্যারাটে প্রশিক্ষণ দেবেন। সেই থেকে হাজার হাজার মেয়ে তাঁর কাছে খেলাটি শিখছে।

আরও পড়ুন – বিশ্ব সোনাজয়ী বাংলার গর্ব আয়েশা নুরের জন্ম দিন পালিত পথ শিশুদের সাথে

কলকাতার বেনিয়াপুকুরের বস্তির মেয়ে আয়েশার বাবা নেই। থাকে একটি কুঁড়ে ঘরে। দরিদ্র সংসার চলে কোন মতে। এরই মধ্যে প্রচন্ড মানসিক শক্তিতে ভর করে বহু আন্তর্জাতিক পুরস্কার ছিনিয়ে এনেছে।

আয়েশা নূরের বক্তব্য, “আজ মেয়েরা নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে, ধর্ষণ হচ্ছে। তাই মেয়েদেরকেই নিজেদের বাঁচার পথ খুঁজতে হবে। কেউ কাউকে বাঁচায় না, নিজেকে বাঁচতে হয়। মেয়েদের সব সময় বাঁচানোর জন্য পুলিশ প্রশাসন থাকেনা। তাই নিজেকে বাঁচানোর কৌশল শিখতে হবে।”

আরও পড়ুন – কলকাতার বস্তির মুসলিম ঘরের মেয়ে আয়েশা নুরের বিশ্বজয়

নারী নির্যাতন, ধর্ষণ, শ্লীলতানির বিরুদ্ধে নারীদেরকেই লড়াই করার পথ দেখাচ্ছেন আয়েশা। আত্মরক্ষার জন্য ক্যারাটে শেখাচ্ছেন মেয়েদের। তার লক্ষ্য বছরে এক লাখ মেয়েকে প্রশিক্ষণ দেওয়া। ইতিমধ্যেই বিভিন্ন জেলার হাজার হাজার মেয়ে আয়েশার কাছে আত্মরক্ষার ট্রেনিং নিচ্ছে। আয়েশার ক্যাম্পে ১২ জন ট্রেনার আছেন। ভারত ছাড়াও দুনিয়ার এক লক্ষ মেয়েকে আত্মরক্ষার জন্য কেরাটি শেখানো তাঁদের টার্গেট। প্রতিদিন ৭০০ শিশু বিনামূল্যে কেরাটি শেখে বলে জানা গেছে।

বিশ্ব সোনাজয়ী এই কন্যা ছোট থেকেই এপিলেপ্সিতে ভুগছেন। বেশিরভাগ সময় অসুস্থ থাকেন। তবে কিছু করার অদম্য জেদের কাছে হার মেনেছে সব শারীরিক, মানসিক ও আর্থিক সমস্যা। তিনবার সেরার শিরোপা পেয়েছেন আয়েশা। দুবার পুরস্কার জিতে এনেছেন থাইল্যান্ড থেকে। আমেরিকা সহ বিশ্বের বহু দেশের কাছে যে কন্যা মহামূল্যবান, দেশের মাটিতে তাঁর জন্য কিছু করার কেউ নেই কেন? প্রশ্ন তুলছেন আয়েশা নুরের শিক্ষক এম এ আলি।
বাংলার জনপ্রিয় এই মেয়ের জন্য বিভিন্ন মিডিয়া ব্যাক্তিগত ভাবে কাজ করছে। কিন্তু এ রাজ্যের ক্রীড়া দপ্তর? সরকার? কিংবা সংখ্যালঘু দপ্তর? কেউ কেন এই নক্ষত্রের পাশে নেই? কেন আজও একজন আন্তর্জাতিক সফল মেয়েকে অসুস্থ হয়ে কুঁড়ে ঘরে থাকতে হবে? উঠছে প্রশ্ন।
তবে কেউ যদি আয়েশা নূরের পাশে দাঁড়াতে চান কিংবা আরও কিছু জানতে চান তবে যোগাযোগ করতে পারেন বলে জানাচ্ছেন তাঁর মা।

যোগাযোগ: 8777860897

ব্যাংক বিস্তারিত:
AYESHA NOOR
Savings Account No: 0088010250894
United Bank of India
Entallly Branch
156 A J C Bose Road, Kolkata-700014.
IFSC Code: UTBI0ENT131